কর্মী সন্মেলনে ডাক পেলেন না দলের বিধায়ক, ব্লক সভাপতি

1377

সামসী, ২ ডিসেম্বরঃ টিএমসি সংখ্যালঘু সেলের ব্লক কর্মী সন্মেলনে দলের বিধায়ক ও দলের ব্লক সভাপতি ডাক পেলেন না। বুধবার রতুয়ার কাহালায় কর্মী সন্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে বিষয়টি নিয়ে শাসকদলের মধ্যে জোর বিতর্ক দেখা গিয়েছে। এদিকে, ডাক না পেয়ে রীতিমতো হতাশ বিধায়ক সমর মুখার্জি এবং দলের ব্লক সভাপতি ফজলুল হক।

শাসকদলের রতুয়ার বিধায়ক সমরবাবু বলেন, উনারা কেন ডাকেননি, সেটা উনারাই বলবেন। দলের ব্লক সভাপতি ফজলুল হক বলেন, দলের জেলা সম্পাদক শেখ ইয়াসিনের নির্দেশ মতোই তাঁকে ডাকা হয়নি। তবে শেখ ইয়াসিন অবশ্য অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। রতুয়ার মাটিতে দলের সংখ্যালঘু সেল বড় ধরণের সন্মেলন করলেন, সেখানে দলের ব্লক সভাপতি ও দলের বিধায়ক ডাক পাননি। এনিয়ে দলের মধ্যে গোষ্ঠী কোন্দল আবারও ধরা পড়েছে।ইতিমধ্যেই, বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক মহলে ব্যপক চর্চা শুরু হয়েছে।

- Advertisement -

এবিষয়ে সংখ্যালঘু সেলের জেলা সভাপতি মোশারফ হোসেন জানান, ব্লক সন্মেলনে কারা অতিথি থাকবেন সেটা ঠিক করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল সংগঠনের ব্লক সভাপতিকে। দু’জনকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তিনি আরও জানিয়েছেন, এদিনই জেলা তৃণমূল কংগ্রেস কার্যালয়ে রাজ্য নেতৃত্বের নির্দেশে জেলা কমিটির মিটিং ডেকেছিলেন সভানেত্রী মৌসম নুর। সেই বৈঠকে যাওয়ার জন্যই হয়তো সংখ্যালঘু সেলের ব্লক সন্মেলন এড়িয়ে গিয়েছেন ওই দুই নেতা।

বুধবার পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সন্মেলনের সূচনা করেন টিএমসি সংখ্যালঘু সেলের সভাপতি মোশারফ হোসেন, চেয়ারম্যান হাফেজ নজরুল ইসলাম ও জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সম্পাদক শেখ ইয়াসিন, জেলা পরিষদ সদস্য হুমায়ুন কবির বাজনা, রতুয়া ১ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আবিদা বেগম, সেলের ব্লক সভাপতি ডঃ হারুন আল রশিদসহ অনেকেই। অতিথিদের বরণ করে নেওয়ার পরেই সন্মেলন শুরু হয়। এদিন সন্মেলনে উপস্থিত অতিথিদের জন্য স্বাগত জানিয়ে প্রারম্ভিক ভাষণ দেন রতুয়া ১ নম্বর ব্লক সংখ্যালঘু সেলের সভাপতি ডঃ হারুন আল রশিদ। কর্মী সন্মেলনে সকল বক্তাই কার্যত একুশের নির্বাচন নিয়ে আলোকপাত করেছেন।