টিএমসিপিতে দ্বন্দ্ব! ঘোকসাডাঙা কলেজে উত্তেজনা, বসল পুলিশ পিকেট

129

ঘোকসাডাঙ্গা: স্মারকলিপি দেওয়া নিয়ে উত্তেজনা ছড়াল বীরেন্দ্র মহাবিদ্যালয়ে। এই ঘটনায় তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দুই গোষ্ঠীর লড়াই ফের প্রকাশ্যে চলে এসেছে। বেশ কিছুদিন ধরেই তৃণমূল ছাত্র পরিষদের মাথাভাঙ্গা ২ ব্লক সভাপতি এবং সহ সভাপতির মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে। গত ৪ অক্টোবর তা প্রকাশ্যে আসে। ব্লক সহ সভাপতি ওয়াহেদ হাসানের সঙ্গে ব্লক সভাপতি দীপঙ্কর বর্মনের দলের ছেলেদের ঝামেলা হয়। গুরুতর আহত হয় একজন ছাত্র। এনিয়ে দুই গোষ্ঠীই ঘোকসাডাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এদিন কলেজ খুললে ওয়াহেদ হাসান তার দল নিয়ে কলেজে স্মারকলিপি দিতে যান। তবে করোনা পরিস্থিতির জন্য গেট খোলার অনুমতি দেননি কলেজ কর্তৃপক্ষ। সেই সময় অন্য তৃণমূল ছাত্র পরিষদের অন্য গোষ্ঠীর ছেলেরা উপস্থিত থাকায় উত্তাল পরিস্থিতি তৈরি হয়।

যদিও গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের অভিযোগ প্রকাশ্যে মানতে চাননি কেউই। ওয়াহেদ হাসানের দাবি, কলেজের কিছু ছাত্র মেয়েদের ইভটিজিংয়ের পাশাপাশি ইউনিট রুমে নানারকম আপত্তিকর কাজকর্ম করে চলেছে। তারা তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ছাত্র কি না তা জানা নেই। দীপঙ্কর বর্মন জানান, বিষয়টি জানা নেই। তবে গোষ্ঠী কোন্দলের বিষয় নেই। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কোচবিহার জেলা সভাপতি অনির্বাণ সরকার জানান, বিষয়টি জানা নেই যদি কোনও গন্ডগোল হয়ে থাকে তাহলে কলেজ কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশ প্রশাসন নিয়ম মেনেই ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। কলেজের অধ্যক্ষ সহদেব রায় জানান, একদল ছাত্র কলেজের গেট ভাঙার চেষ্টা করে। এমনকি গেটের তালা ভেঙে ফেলে। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। মাথাভাঙ্গার এসডিপিও সুরজিৎ মণ্ডল জানান, কলেজের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।

- Advertisement -