কংগ্রেসী পঞ্চায়েত সদস্যের তৃণমূলে যোগদান, রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে এই জেলায়

228

হরিশ্চন্দ্রপুর: ভোটের পরেই হরিশ্চন্দ্রপুরের শাসকদলের গোষ্ঠী কোন্দল আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। জেলায় এবার শাসকদল আশাতীত ফল করেছে। তার সঙ্গে হরিশ্চন্দ্রপুরে এবার প্রথমবার তৃণমূল কংগ্রেস বিধানসভা আসনে জয়লাভ করেছে। তারপরে শুরু হয়েছে বিভিন্ন দল থেকে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান পর্ব। আর এই যোগদান পর্বকে ঘিরে শুরু হয়েছে দলের মধ্যে গোষ্ঠী কোন্দল। এবারে শাসকদলে কংগ্রেসী পঞ্চায়েত সদস্যের যোগদানকে ঘিরে শাসক দলের ব্লক সভাপতি এবং অঞ্চল সভাপতির মধ্যে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চলে এসেছে। এমনকি শাসক দলের এই দুই নেতা কংগ্রেসী ওই পঞ্চায়েত সদস্যের যোগদান কে ঘিরে একে অপরের বিরুদ্ধে সংবাদমাধ্যমের কাছে তীব্র ভাবে আক্রমণ করেছেন।

দু’দিন আগে মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর তৃণমূল কার্যালয়ে কংগ্রেস থেকে তৃণমূলে যোগদান করেন মহেন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কংগ্রেস সদস্য তথা প্রাক্তন প্রধান মোহাম্মদ মুজাহিদ। সঙ্গে যোগদান করেছে প্রায় পাঁচ শতাধিক কংগ্রেস কর্মী। যোগদান করেন হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নং ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি মানিক দাসের হাত ধরে। তারপরেই যোগদানকে ঘিরে ছাড়াই উত্তেজনা। প্রকাশ্যে আসে মহেন্দ্রপুর অঞ্চল এবং হরিশ্চন্দ্রপুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী কোন্দল। সেই কংগ্রেসের সদস্যকে মানতে নারাজ মহেন্দ্রপুর অঞ্চল কমিটি। ৮১ নম্বর জাতীয় সড়কে ভবানীপুর ব্রিজের উপর টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা। তাদের দাবি ছিল এই যোগদান তারা মেনে নেবেন না।

- Advertisement -