বেঙ্গালুরু, ৭ সেপ্টেম্বরঃ তার জন্য রাত জেগেছিল প্রায় গোটা দেশ। কিন্তু চাঁদের মাটি ছোঁয়ার আগের মুহূর্তে পৃথিবীর সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেল চন্দ্রযানের ল্যান্ডার বিক্রমের। কী কারণে বাধা এল, এখনও জানায়নি ইসরো। জানা গেছে, ল্যান্ডার থেকে সঙ্কেত পাওয়ার চেষ্টা চলছে। ইসরোর চেয়ারম্যান কে শিবন জানিয়েছেন, চাঁদের মাটি থেরে ঠিক ২.১ কিলোমিটার দূরত্বে ল্যান্ডারের সঙ্গে আচমকাই যোগাযোগ ছিন্ন হয়ে যায় অরবিটরের। কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এদিন বিক্রমের মাটি ছোঁয়ার সাক্ষী থাকতে বেঙ্গালুরুতে ইসরোর সদর দপ্তরে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু সংকেত না মেলায় তাঁকেও যেন হতাশ লাগছিল। পরে অবশ্য বিজ্ঞানীদের হতাশ না হতে বলেন তিনি। মোদি বলেন, বিজ্ঞানীরা যা করেছেন, তাঁর জন্য গোটা দেশ গর্বিত। বিক্রম সফলভাবে ল্যান্ড করলে এই প্রথম চাঁদের দক্ষিণ মেরু মানুষের নাগালে আসত। একই সঙ্গে বিক্রমের সঙ্গে থাকা রোভার।প্রজ্ঞান চাঁদের মাটিতে প্রাণের খোঁজ চালাত।