রাস্তার কাজ শেষ হয়নি, ধুলোয় ঢেকেছে গ্রাম

209

নীহাররঞ্জন ঘোষ, মাদারিহাট : গত ৩ জুলাই ফালাকাটা ব্লকের উমাচরণপুর খাউচাঁদপাড়ার রাস্তা পাকা করার কাজের শিলান্যাস হয়েছিল। এই রাস্তার কাজের জন্য ৪৬ লক্ষ ৮৩ হাজার ৫৬৮ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে আলিপুরদুয়ার জেলা পরিষদের তরফে। পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিল, তিন মাসের মধ্যে এই পাকা রাস্তার কাজ শেষ করা হবে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, পাঁচ মাস পার হয়ে গেলেও রাস্তার অর্ধেক কাজও সম্পন্ন হয়নি। তাঁদের আরও অভিযোগ, রাস্তাটিতে বালি-পাথর ফেলা হলেও জল দেওয়া হয় না। তার ফলে ধুলোয় অন্ধকার হয়ে  থাকে গোটা গ্রাম।

সুনীলচন্দ্র দাস, গোপাল সন্ন্যাসী প্রমুখ স্থানীয় বাসিন্দা জানান, রাস্তাটি বিটুমিন দিয়ে পাকা করার কথা রয়েছে। তার আগে বালি-পাথর দিয়ে প্রাথমিক কাজ করা হয়েছে। কিন্তু নিয়মিত জল দেওয়া হয় না বলে তাঁদের অভিযোগ। ফলে ওই রাস্তায় গাড়ি যাতায়াত করার সময় ধুলোর চাদরে ঢেকে যায় এলাকার বাড়িঘর। ধুলোর জেরে গ্রামের প্রায় প্রত্যেকটি পরিবারেই কেউ না কেউ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাঁদের আরও অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে কাজ কেন বন্ধ রাখা হয়েছে, তা তাঁরা জানেন না। এই রাস্তা খাউচাঁদপাড়ার সঙ্গে ফালাকাটা এবং মাদারিহাটের যোগাযোগের মূল মাধ্যম। বহুদিন দাবি জানানোর পর এই রাস্তাটি পাকা করার জন্য অনুমোদন পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু ঠিকাদারি সংস্থার ঢিলেমির জন্য তাঁদের ভোগান্তিতে পড়তে হয় বলে অভিযোগ। অথচ নিয়ম অনুসারে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল। যদিও এই বিষয়ে আলিপুরদুয়ার জেলা পরিষদের শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ শেফালি নট্ট জানান, বর্ষার কারণে কিছুদিন কাজ বন্ধ ছিল। আবার দ্বিতীয় পর্যায়ে কাজ শুরু হয়েছে। এই দ্বিতীয় পর্যায়ে কাজ শেষ হওয়ার পরেই বিটুমিনের কাজ করা হবে বলে তিনি জানান। কেন জল দেওয়া হচ্ছে না, সেই বিষয়ে তিনি খোঁজ নেবেন বলে জানিয়েছেন।

- Advertisement -