আত্মঘাতী স্বঘোষিত হিন্দু ধর্মগুরু ভাইয়ুজি মহারাজ

134

ইন্দোর, ১২ জুনঃ আত্মঘাতী হলেন বিতর্কিত স্বঘোষিত ধর্মগুরু তথা আধ্যাত্মিক গুরু ভাইয়ুজি মহারাজ। মঙ্গলবার দুপুরে তিনি নিজের মাথায় গুলি করেন। গুরুতর জখম অবস্থায় সঙ্গে সঙ্গে ইন্দোরের বোম্বে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। হাসপাতালের তরফে তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

তবে আচমকা এই ধর্মগুরুর মৃত্যু নিয়ে গভীর রহস্য ঘনীভূত হয়েছে। ডিআইজি জানিয়েছেন, তাঁর বাড়ি সিলভার স্প্রিংয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। তিনি একটি সুইসাইড নোট লিখে রেখে গিয়েছেন। যেখানে লেখা, ‘পরিবারের দায়িত্ব পালনের জন্য কাউকে অবশ্যই তাকতে হবে। আমি চলে যাচ্ছি। প্রচন্ড চাপ। জীবনের প্রতি বিতশ্রদ্ধ।’

- Advertisement -

গোটা এলাকা ঘিরে রেখেছে পুলিশ। খবর পেয়ে ভক্তরা ভিড় জমিয়েছেন হাসপাতালের বাইরে।

জানা গিয়েছে, তিনি পরিবার এবং রাজনৈতিক চাপে জর্জরিত ছিলেন। দুপুর ২.৫০ মিনিট নাগাদ তিনি নিজেকে গুলি করেন।

তাঁর আসল নাম উদয় সিং দেশমুখ। কয়েক বছর আগে তাঁর প্রথম স্ত্রীর মৃত্যু হয়। গতবছর দ্বিতীয় বিয়েন ভাইয়ুজি। আত্মঘাতী হওয়ার কিছুক্ষণ আগে শিবরাত্রি নিয়ে একটি পোস্ট করেন। মধ্যপ্রদেশ ও মহারাষ্ট্রে তাঁর অগণিত ভক্ত ছড়িয়ে রয়েছে। ইন্দোরে তাঁর আশ্রম রয়েছে। দেবেন্দ্র ফড়নবিশ সহ বেশ শীর্ষ রাজনৈতিক নেতৃত্ব, লতা মঙ্গেশকরের মত ব্যক্তিত্বও তাঁর অনুগামী ছিলেন।

রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে চিরকালই গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ছিলেন এই ধর্মগুরু। ২০১২ সালে ভাইয়ুজির সাহায্য নিয়ে আন্না হাজারের অনশন ভঙ্গ করতে সমর্থন হয় মহারাষ্ট্রের বিলাশ রাও দেশমুখ সরকার।