ব্লক সভাপতিকে ‘হুমকি’ পোস্ট, অভিযুক্ত যুব নেতা

253

মেখলিগঞ্জ: তৃণমূলের মেখলিগঞ্জ ব্লক সভাপতি উদয় রায়ের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দলের যুব সভাপতি শাহীন সরকারের। যাকে কেন্দ্র করে সরগরম মেখলিগঞ্জের রাজনীতি। রবিবার বিকাল চারটে নাগাদ সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে শাহীন লেখেন, ‘বিজেপির দালাল উদয় রায় এখন নাটক শুরু করেছেন। ওঁকে উচিত শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে আর দেরি নয়।’ রাজনৈতিক মহলের ধারণা, শাহীন এই পোস্টে উদয়কে শুধু বিজেপির দালাল বলেননি পাশাপাশি একপ্রকার হুমকিও দিয়েছেন। পোস্টের কথা অবশ্য স্বীকার করেছেন শাহীন। তাঁর দাবি, ‘ভোটের আগে ব্লক সভাপতি ও তাঁর কয়েকজন অনুগামী ভিতরে ভিতরে বিজেপির হয়ে প্রচার করেছেন। আজ নিজের বাড়িতে দলের একটি বৈঠক ডেকেছেন। সেখানে আমাকে এবং মেখলিগঞ্জ বিধায়ক তথা মন্ত্রী পরেশচন্দ্র অধিকারীকে ডাকা হয়নি।’ তিনি আরও বলেন, ‘উদয় রায় বিজেপির দালালি করায় দলের কর্মীরা তাঁকে মেনে নিতে পারছেন না। আমরা ব্লক সভাপতির পরিবর্তন চাই। এনিয়ে উচ্চ নেতৃত্বকে জানানো হয়েছে।’

মেখলিগঞ্জ ব্লক তৃণমূল সভাপতি উদয় রায় বলেন, ‘ভোটের আগে বারবার আমার বাড়িতে আসতেন পরেশচন্দ্র অধিকারী। তাঁর হয়েই ভোট প্রচার করা হয়েছে। অধিকাংশ নির্বাচনি সভায় আমি নিজেও উপস্থিত ছিলাম। কোচবিহার জেলায় দলের ভালো ফল না হলেও আমরা মেখলিগঞ্জে বিপুল ভোটে জয়ী করালাম। তাই শাহীন সরকারের মতো নাবালক নেতা কি বলল তাতে যায় আসে না।’ হুমকি প্রসঙ্গে উদয় রায় বলেন, ‘আমি গোটা মেখলিগঞ্জ ঘুরে রাজনীতি করি। এখনও করছি পারলে ছুঁয়ে দেখাক।’

- Advertisement -

মেখলিগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক তথা মন্ত্রী পরেশচন্দ্র অধিকারী বলেন, ‘আমি এখনও দেখিনি কে কী পোস্ট করেছে।’ যদি দলের অভ্যন্তরে কোনও মতবিরোধ হয় তবে দলের জেলা পদাধিকারী নেতৃত্ব দেখবেন বলে দাবি পরেশের। দলের জেলা সভাপতি পার্থপ্রতিম রায় বলেন, ‘আমাকে নিয়ে কেউ কিছু বলেনি। তবে বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখছি।’