সিল করা হল করোনা আক্রান্ত তরুণীর বসতি এলাকা

587

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: আরও এক করোনা আক্রান্তের হদিস মিলল পূর্ব বর্ধমানে। লালা পরীক্ষায় এই নিয়ে জেলায় দুই মহিলা সহ ছয় জন বাসিন্দার করোনা পজিটিভ ধরা পড়ল। ষষ্ঠ করোনা আক্রান্ত বছর ২৩-এর তরুণীর বাড়ি কেতুগ্রাম-১ ব্লকে। এই ঘটনা জানাজানি হতেই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন কেতুগ্রামের বাসিন্দারা।

তরুণীর করোনা পজিটিভ ধরা পড়ার খবর সোমবার রাতে জেলা প্রশাসনের কাছে পৌঁছায়। এ খবর পাওয়া মাত্রই নড়ে চড়ে বসে কেতুগ্রাম থানার পুলিশ ও প্রশাসন। চিকিৎসার জন্য রাতেই তরুণীকে পাঠানো হয় দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে। এছাড়াও প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষ ভাবে তরুণীর সংস্পর্শে আসা তাঁর বাবা, মা, বোন ও এক বান্ধবীকে বর্ধমান শহর লাগোয়া গাংপুরের প্রি-কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কনটেনমেন্ট জোন ঘোষণা করে তরুণীর বসতি এলাকা পুরোপুরি সিল করে দেওয়া হয়েছে। ওই এলাকায় কেউ যাতে ঢুকতে বেরোতে না পারে তার জন্য ব্যারিকেড দিয়ে পুলিশ পাহারা বসানো হয়েছে।

- Advertisement -

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই তরুণী কর্মসূত্রে কলকাতার রাজারহাটে থাকতেন। সেখানে তিনি ইমারজেন্সী অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা সংস্থায় অ্যাটেনডেন্টের কাজ করেন। সেখানে থাকাকালে শারীরিক উপসর্গ দেখা দেওয়ায় তরুণীর লালা পরীক্ষায় পাঠানো হয়। ৯মে তাঁর রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় তরুণীকে ছুটি দেওয়া হয়। যদিও তরুণী বাড়ি আসার আগে ফের তাঁর লালা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়।

জেলাশাসক বিজয় ভারতি বলেন, তরুণীর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট সোমবার রাতে পজিটিভ আসে। ওই তরুণীকে দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গাংপুরের প্রি-কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে তরুণীর সংস্পর্শে আসা পরিবার সদস্যদের। ওই তরুণীর বসতি এলাকা কনটেনমেন্ট জোন ঘোষণা করে পুরোপুরি সিল করে দেওয়া হয়েছে।