করোনা মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরলেন এক মহিলা

262

হলদিবাড়ি: করোনা যুদ্ধে জয়ী হলেন হলদিবাড়ির এক মহিলা। তিনি শহরের ১০ নম্বর ওয়ার্ডের শান্তিনগরের বাসিন্দা। মঙ্গলবার তাঁর করোনা রিপিট টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় তাঁকে জলপাইগুড়ি কোভিড হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।আক্রান্ত ওই মহিলা বর্তমানে বিবাহিত সূত্রে জলপাইগুড়ি শহরেই থাকেন।

হাসপাতালে সূত্রে খবর, জ্বর ও সর্দি-কাশি নিয়ে ওই মহিলা গত ১০ তারিখ হলদিবাড়িতে বাপের বাড়ি আসেন। পরিবার সূত্রে দাবি,শারীরিক অসুস্থতার জন্য বাপের বাড়িতে এসে আলাদাভাবে একটি ঘরে একাই থাকতেন। গত ১৩ তারিখ হলদিবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে তাঁর লালার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ১৭ তারিখ রাতে তার রিপোর্ট ব্লক প্রশাসনের হাতে এসে পৌঁছয়। তাতেই করোনা ভাইরাস আক্রান্তের বিষয়টি সামনে আসে। এরপর গত ১৮ তারিখ তাঁকে জলপাইগুড়ি কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। মঙ্গলবার রাতে তাঁকে ছুটি দেওয়ার পর পুনরায় হলদিবাড়ির বাপের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। এদিকে এদিনও তাঁর পরিবারের বাকি সদস্যরা কনটেনমেন্ট জোনে রয়েছেন বলে ব্লক প্রশাসন সূত্রে খবর। গত সোমবার কাশিয়াবাড়িতে তাঁদের লালারসের নমুনাও সংগ্রহ করা হয়।

- Advertisement -

হলদিবাড়ি পুরসভার স্যানিটারি ইন্সপেক্টর শরবিন্দু ঘোষ বলেন, এখন পর্যন্ত পুর এলাকায় মোট তিনজন আক্রান্ত হন। ইতিমধ্যে সকলেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। গ্রামীণ এলাকার আক্রান্ত দুইজন ব্যক্তি আজও জলপাইগুড়ি কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বিডিও সঞ্জয় পন্ডিত বলেন, সোমবার হলদিবাড়ি ব্লকে তিনটি পৃথক শিবির করে মোট ৪৮৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরমধ্যে উত্তর বড় হলদিবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ১৭৭, দেওয়ানগঞ্জ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ১৭২ ও হেমকুমারী গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ১৩৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।