করোনা সংক্রমণ ছড়াল মালদা জেলার ৬টি ব্লকে

1714

রাজশ্রী প্রসাদ, মালদা: মালদা জেলার ছ’টি ব্লকে ছড়াল করোনা সংক্রমণ। সোমবার রাতে নতুন করে যে ৬ জনের দেহে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে তাঁরা জেলার বিভিন্ন ব্লকের বাসিন্দা বলে জানা গেছে। তবে তারা প্রত্যেকেই পরিযায়ী শ্রমিক। রবিবার ও সোমবার বাসে চেপে মালদায় ফেরেন তাঁরা। সোমবার নতুন করে আক্রান্ত ৬ জনকে গভীর রাতে পুরাতন মালদার কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন মোট ১৭ জন করোনা রোগী। সবমিলিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল উনিশ। এদের মধ্যে একজন সুস্থ হয়েছেন।

জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, সোমবার রাত দশটা নাগাদ মোট ৫১২ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট আসে। তার মধ্যে ছ’টি রিপোর্ট ছিল করোনা পজিটিভ। এদের মধ্যে একজন হরিশ্চন্দ্রপুর ১ ব্লকের বাসিন্দা। সেখানকার বাকি আক্রান্তের মতো তিনিও আজমেঢ় ফেরত পরিযায়ী শ্রমিক বলে খবর।

- Advertisement -

অন্যদিকে বাকিরা কালিয়াচক ১, পুরাতন মালদা, হবিবপুর ও মানিকচকের বাসিন্দা। পুরাতন মালদার মঙ্গলবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের জলঙ্গা ও যাত্রাডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের বলাতলি গ্রামের দুই পরিযায়ী শ্রমিকও আক্রান্ত হয়েছেন। ওই শ্রমিকেরা উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, ওড়িশা, মতো ভারতের বিভিন্ন রাজ্য থেকে জেলায় ফেরেন বলে জানা গেছে। জেলায় করোনা সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকায় উদ্বিগ্ন মালদার প্রশাসনিক ও স্বাস্থ্য কর্তারা। পরিযায়ী শ্রমিকদের সংক্রমণ সম্পর্কে নিশ্চিত হতে এবং সংক্রমণ ঠেকাতে ভিনরাজ্য ফেরতদের জেলায় ফেরামাত্র আর হোম কোয়ারান্টিনে রাখতে নারাজ জেলা প্রশাসন। বরং জেলায় ফিরলে তাদের সরকারি কোয়ারান্টিনে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরিযায়ী শ্রমিকদের লালার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার পরই তাঁদের হোম কোয়ারান্টিনে পাঠানো হবে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর। এজন্য ইতিমধ্যেই জেলার দুই পুরসভা ও পনেরোটি ব্লক প্রশাসনকে কোয়ারান্টিন সেন্টার চিহ্নিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।