বাংলায় কোভিডে মৃত্যু একধাক্কায় ২২ থেকে বেড়ে ৩৩

696

কলকাতা: বাংলায় কোভিডে মৃত্যু একধাক্কায় ২২ থেকে বেড়ে হল ৩৩। বৃহস্পতিবার বিকেলে নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে এই সংখ্যাই বলেছেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা।

রাজ্যে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে দ্বিমত ছিলই। রাজ্যে কেন্দ্রীয় টিম আসার পর মুখ্যমন্ত্রী নবান্নে বলেছিলেন রাজ্যে মৃত্যু হয়েছিল ৫৭ জনের। কিন্তু তার মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন ১৮ জন। বাকি ৩৯ জন অন্য রোগে মারা গেলেও তাঁদের মধ্যে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গিয়েছিল। তারপর সংখ্যাটা বাড়তে থাকে।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: কলকাতার পিয়ারলেস হাসপাতালের দুই চিকিৎসক সহ করোনায় আক্রান্ত পাঁচ

এদিন নবান্নে মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা জানান, পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্ত ১০৫ জন মারা গিয়েছেন। এরমধ্যে ৩৩ জনের মৃত্যুর কারণ কোভিডই। রাজ্যের ৮০ শতাংশ করোনা পজিটিভ কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনা ও হাওড়ায়। নতুন করে হুগলি থেকেও সংক্রমণের খবর পাওয়া গিয়েছে। এদিন পর্যন্ত রাজ্যে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৭২। আটটি জেলা এখনও পর্যন্ত করোনা মুক্ত রয়েছে।

পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, ‘রাজ্যের গ্রীন জোনে ছাড় দেওয়া নিয়ে নতুন বিধি প্রকাশ করবে সরকার। সরকারি কোয়ারান্টিন সেন্টারে আছেন ৫হাজার ২৮৮জন। হোম কোয়ারান্টিনে ১০ হাজার ৭৭৩জন। গতকাল হোম কোয়ারান্টিন থেকে মুক্ত হয়েছেন ৮ হাজার ৯৭২ জন। সরকারি কোয়ারান্টিনে পর্যাপ্ত জায়গা রয়েছে। রাজ্যে ৬৭টি করোনা হাসপাতাল রয়েছে।’ ১০৫ জনের মৃত্যুর কারণ বিশেষজ্ঞ কমিটি খতিয়ে দেখছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।