করোনা জয়ীদের নিয়ে দিনহাটায় করোনা ওয়ারিয়রস্ ক্লাব

262

দিনহাটা: প্রায়ই দেখা যায় কোনও ব্যক্তির যদি করোনা হয়, তাকে ও তার পরিবারকে একেবারে অন্য দৃষ্টিতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এমনকি সেই মারণ ভাইরাসকে হারিয়ে যখন সেই ব্যক্তি এলাকায় ফিরছেন তখন তাকে কাজ পেতে গিয়ে একপ্রকার হয়রানির স্বীকার হতে হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই আয় না থাকায় একপ্রকার দিশেহারা অবস্থা হয়ে দাঁড়াচ্ছে করোনা জয়ীদের। তাই রাজ্য সরকার ইতিমধ্য সেই সমস্যা সমাধানে বিভিন্ন জেলায় করোনা ওয়ারিয়রস ক্লাব তৈরির কথা বলেছিলেন। ইতিমধ্যে বিভিন্ন জেলায় সেই মতো করোনা ওয়ারিয়রস ক্লাবও তৈরি হয়েছে। এবার সেই পথ ধরে কোচবিহার জেলার দিনহাটা মহকুমা প্রশাসনের উদ্যোগেও তৈরি হচ্ছে এরকমই করোনা ওয়ারিয়রস ক্লাব।

মহকুমা শাসক শেখ আনসার আহমেদ জানান, মূলত যে সকল বাসিন্দা করোনা জয় করে বাড়ি ফেরাদের কর্মমুখী করতে রাজ্য সরকার করোনা ওয়ারিয়রস ক্লাব তৈরি করতে বলেছেন। তারই ফল স্বরূপ মহকুমা ভিওিক করোনা ওয়ারিয়রস ক্লাব তৈরি করা হয়েছে। দিনহাটা এরকম অনেক বাসিন্দা রয়েছেন যারা করোনা জয় করে এসেছেন এবং চিকিৎসা বিজ্ঞান অনুযায়ী এধরণের ব্যক্তিদের দ্বিতীয় বার সংক্রমিত আশঙ্কা নেই বললেই চলে। তাই তারা যদি করোনা হাসপাতাল গুলিতে কোনও পরিষেবার কাজ করতে চান, তাহলে তা করতে পারেন। এরফলে তারা প্রতিমাসে বেতনও পাবেন বলে মহকুমা শাসক জানান।

- Advertisement -

তিনি আরও জানান, দিনহাটা মহকুমায় এরকম ২৫ জন করোনা জয়ী আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তিনি জানান ইতিমধ্যে তাদের নাম আমরা রাজ্যে সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠিয়ে দিয়েছি। সেখান থেকে নির্দেশ এলেই তাদের দায়িত্ব বুঝিয়ে দেওয়া হবে। এরফলে করোনা জয়ীরা যেমন কাজ পাবেন। তেমনি তাদের দিয়ে এলাকায় সচেতনতাও গড়ে তোলা হবে। করোনাকে কী ভাবে জয় করতে হয় এবং প্লাজমা প্রদানে বাসিন্দাদের উৎসাহিত করার মতো কাজও তারা করবে বলে মহকুমা শাসক জানান। তিনি বলেন, খুব শীঘ্রই আরও করোনা জয়ী তাদের করোনা ওয়ারিয়রস ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত হবেন। এরকমই নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক করোনা জয়ী জানান, এলাকায় অনেকের কাছে কাজ চাইলেও কাজ পাচ্ছিলাম না। এই ক্লাবে যুক্ত হয়ে পুনরায় কর্মজগতে ফিরতে পারব ভেবেই আনন্দ হচ্ছে।