টোকিও, ১৫ ফেব্রুয়ারিঃ করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্ক সত্বেও টোকিও থেকে সরছে না অলিম্পিকের আসর। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দুই সংস্থাই জানিয়ে দিল, নির্ধারিত সূচি মেনেই অলিম্পিকের আয়োজন করা হবে টোকিওতে।
চিননে মহামারীর আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। সেখান থেকে ভাইরাসের সংক্রমণ বিশ্বের অন্তত ২৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। চলতি বছরের জুলাইয়ের শেষেই টোকিওতে অলিম্পিকের আসর বসার কথা। কিন্তু করোনা যে মহামারীর আকার ধারণ করেছে তাতে অলিম্পিকের আয়োজন নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। তবে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি জানিয়ে দিয়েছে, টোকিও এখনও পুরোপুরি নিরাপদ। তাই অলিম্পিক সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার বা স্থগিত করে দেওয়ার কোনও প্রশ্নই উঠছে না।
অলিম্পিক জনসংযোগকারী কমিটির চেয়ারম্যান জন কোটস জানান, করোনা ভাইরাসের জন্য বিশ্বের সব দেশের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলছে আইওসি। সারা বিশ্বে ২৫ দেশ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। টোকিও শহরে অলিম্পিক করা কতটা নিরাপদ? বিভিন্ন দেশের এই আবেদনের ভিত্তিতে শনিবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা রিভিউ কমিটির সভা করে। সেই সভার পর কমিটির পক্ষ থেকে তথ্য দিয়ে জানানো হয় টোকিও শহরে অলিম্পিক্স করার ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা নেই । তবে করোনার কারণে আয়োজকদের অতিরিক্ত সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে আই.ও.সি এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা টোকিওতে অলিম্পিকের আসর নিয়ে নিশ্চিন্তায় থাকলেও চিন্তা অবশ্যই থেকে যাচ্ছে চীনের অ্যাথলিটদের নিয়ে। কারণ, চীন থেকেই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক অ্যাথলিট অলিম্পিকে অংশ নেবেন।