২৪ ঘন্টায় দেশে আক্রান্ত আরও ১০৭৬, মৃত বেড়ে ৩৭৭

364

নয়াদিল্লি : দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১১ হাজার ছাড়াল। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ১১৪৩৯। দেশে মৃতের সংখ্যা ৩৭৭। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৩০৬ জন। অর্থাৎ, এই মুহূর্তে দেশে অ্যাক্টিভ পজেটিভ কেসের সংখ্যা ৯৭৫৬। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে ১০৭৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৮ জনের। এদিকে গতকাল জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী লকডাউনের সময়সীমা ৩ মে অবধি বাড়িয়েছেন।

গত দুসপ্তাহে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার থেকে বেড়ে ১১ হাজার পেরিয়ে গিয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে মোট ৩৭৭ জনের। এর মধ্যে কেবলমাত্র মহারাষ্ট্রেই মারা গিয়েছেন ১৭৮ জন। মহারাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ২৬৮৭। এরপর পরিস্থতি উদ্বেগজনক দিল্লি ও তামিলনাড়ুতে। প্রায় মহারাষ্ট্রের গতিতেই দিল্লিতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এখন সেখানে মোট আক্রান্ত ১৫৬১ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩০ জনের।

- Advertisement -

তামিলনাড়ুতে আক্রান্তের সংখ্যা ১২০৪। সেখানে মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। মধ্যপ্রদেশ (আক্রান্ত ৭৩০, মৃত ৫০) এবং গুজরাট (আক্রান্ত ৬৫০, মৃত ২৮)-এর অবস্থাও সুবিধার নয়। আক্রান্তের সংখ্যার দিক থেকে মহারাষ্ট্র, দিল্লি ও তামিলনাড়ুর পরেই রয়েছে রাজস্থান (৯৬৯)। মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। তেলেঙ্গানায় আক্রান্তের সংখ্যা তুলনায় কম হলেও (৬২৪) মৃতের সংখ্যায় তারা কিছুটা এগিয়ে (১৭)।

পঞ্জাবে আক্রান্ত ১৭৬ এবং মৃত ১২। উত্তরপ্রদেশ (আক্রান্ত ৬৬০, মৃত ৫) এবং অন্ধ্রপ্রদেশ (আক্রান্ত ৪৮৩, মৃত ৯)-এর পরিস্থিতিও উদ্বেগ তৈরি করেছে কেন্দ্রের। কেরল (আক্রান্ত ৩৮৭, মৃত ৩)-এর পরিস্থিতি প্রাথমিকভাবে কিছুটা চিন্তায় ফেললেও এখন সেখানে সংক্রমণে অনেকটাই রাশ টানা সম্ভব হয়েছে। উত্তর-পূর্ব ভারতের মণিপুর ও মিজোরামে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। নাগাল্যান্ডে এক জন করোনায় আক্রান্ত বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে খবর।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের বুধবারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গে এ পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ২১৩। মৃতের সংখ্যা ৭। সুস্থ হয়েছেন ৩৭ জন। তবে মঙ্গলবার রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের বুলেটিনে জানানো হয়েছে, করোনা আক্রান্তের সংখ্যা গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১০ বেড়েছে। মঙ্গলবার রাজ্যে করোনা আক্রান্তের মোট সংখ্যা ১২০। মৃত্যু সংখ্যা আর বাড়েনি। অর্থাত্ স্বাস্থ্য দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, রাজ্যে এ পর্যন্ত করোনায় মৃত ৭ জন।