সংক্রমণ বৃদ্ধির গতিতে এখন শীর্ষে ভারত, দাবি ব্লুমবার্গ কোভিড-ট্র্যাকারের

349
প্রতীকী ছবি।

নয়াদিল্লি: করোনা আক্রান্তের সংখ্যার বিচারে বিশ্বে আমেরিকা ও ব্রাজিল এগিয়ে থাকলেও সংক্রমণ বৃদ্ধির গতিতে বর্তমানে সবার আগে রয়েছে ভারত। এমনটাই দাবি করেছে মার্কিন সংস্থা ব্লুমবার্গের কোভিড-ট্র্যাকার। গত সপ্তাহের তুলনায় ভারতে এই সপ্তাহে ২০ শতাংশ বেড়েছে সংক্রমণের হার।

ভারতে দিন দিন বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। অনেকে সুস্থ হয়ে উঠলেও সংক্রমণের রাশ যেন কিছুতেই টানা যাচ্ছে না। মোট আক্রান্তের বিচারে এখন বিশ্বে এক নম্বরে আমেরিকা। এর পরেই রয়েছে ব্রাজিল। কিন্তু ভারতে দৈনিক সংক্রমিত বৃদ্ধির হার ওই দুই দেশের থেকে বেশি। এদিন ভারতের স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৪৯ হাজার ৯৩১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৪ লক্ষ ৩৫ হাজার ৪৫৩। গত শুক্রবার থেকেই প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা ঘোরাফেরা করছিল ৪৯ হাজারের গণ্ডিতে। সোমবার প্রথমবার একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৫০ হাজার।

- Advertisement -

ব্লুমবার্গের রিপোর্টে বলা হয়েছে, মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ এবং কর্ণাটক সহ কিছু রাজ্যে প্রতিদিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জনসংখ্যার দেশ ভারতে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানো হলেও তা অন্য দেশের তুলনায় কম বলেও দাবি করা হয়েছে। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চের তথ্য অনুযায়ী, রবিবার ভারতে ৫,১৫,৪৭২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

ব্লুমবার্গের দাবি, ভারত ও ব্রাজিলে পরীক্ষার হার খুবই কম। ভারতে প্রতি এক হাজার জনে পরীক্ষা হচ্ছে ১১.৮ জনের আর ব্রাজিলে প্রতি হাজারে ১১.৯৩ জনের। যেখানে আমেরিকায় পরীক্ষার হার প্রতি হাজার জনে ১৫২.৯৮। আরও এগিয়ে রয়েছে রাশিয়া। সেখানে প্রতি হাজারে ১৮৩.৩৪ জনের পরীক্ষা হয়েছে। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকেই এই পরিসংখ্যান মিলেছে বলে দাবি ব্লুমবার্গের।