বিধিনিষেধ শিথিল করতেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ল জার্মানিতে

423

বার্লিন: সামাজিক বিধিনিষেধ শিথিল করার পরেই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ল জার্মানিতে। সংক্রমণের হার এতটাই বৃদ্ধি পেয়েছে যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন সেখানকার বিশেষজ্ঞরা।

জার্মানির রবার্ট কখ ইনস্টিটিউট দৈনিক বুলেটিনে জানিয়েছে, এখন একজন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি ১.১ হারে নতুন ব্যক্তিকে সংক্রমিত করে চলেছেন। অর্থাৎ একজন করোনা রোগীর সংক্রমণ ঘটানোর হার (রিপ্রোডাকশন রেট) বেড়েছে। আর তাতেই প্রমাণ হচ্ছে লকডাউন বিধি শিথিল হওয়ার পর জার্মানিতে সংক্রমণ খানিকটা বেড়ে গিয়েছে।

- Advertisement -

উল্লেখ্য, জার্মানির ১৬টি ফেডারেল স্টেট নেতাদের চাপে সামাজিক জীবন এবং অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের জন্য গত বুধবার থেকে চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল সেখানকার সামাজিক বিধিনিষেধ শিথিল করেন। নতুন করে বহু দোকান, স্কুল খুলে যায় সেখানে। কিন্তু পরিস্থিতি ঘোরাল হলে ফের নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপের জন্য ‘জরুরি ব্রেক’ চালু করেছিলেন।

ঠিক এর দু’দিন বাদে গত শনিবার সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট আইন প্রণেতা এবং মহামারীবিজ্ঞানের অধ্যাপক, কার্ল লটারবাচ হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন যে, শহরে এতটাই জনসমাগম হচ্ছে যে নতুন করে দ্রুত করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া শুরু করতে পারে। তিনি এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘এটি প্রত্যাশা করা উচিত যে সংক্রমণের হার ১ ছাড়িয়ে যাবে এবং আমরা পূর্বের অবস্থান বৃদ্ধিতে ফিরে যাব।’ সামাজিক বিধিনিষেধ শিথিলের প্রস্তুতিও খুব খারাপ ছিল বলে তিনি মন্তব্য করেন।

জার্মানির নর্থ রাইন-ওয়েস্টফ্যালিয়া ও শেলসউইগ হলস্টেইন রাজ্যের দুটি জেলায় করোনা সংক্রমণ বড়সড় আকার নিয়েছে। সেখানকার মাংস প্রক্রিয়াকরণ প্ল্যান্টের শ্রমিকরা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন। কিন্তু পরিস্থিতি ঘোরাল হলে ফের নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপের রাস্তাও খোলা রাখা হয়েছে।