উপসর্গহীনদের থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা কম, জানাল হু

1286
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার করোনা ভাইরাস মোকাবিলা সংক্রান্ত টেকনিক্যাল টিমের প্রধান মারিয়া ভ্যান কারখভ।

জেনেভা: উপসর্গহীন করোনা আক্রান্তদের থেকে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা কম। আর ছড়ালে সেটা বিরল ঘটনা, এমনটাই জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। যদিও উপসর্গহীনদের থেকে দ্রুত সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন বিশ্বের জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার করোনা ভাইরাস মোকাবিলা সংক্রান্ত টেকনিক্যাল টিমের প্রধান মারিয়া ভ্যান কারখভ সেই আশঙ্কাকে কার্যত নস্যাৎ করে দিয়েছেন। সোমবার সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘উপসর্গহীনদের থেকে সংক্রমণ ছড়ানো বা সংক্রামিত হওয়ার সম্ভাবনা কম। এধরণের ঘটনা এখনও পর্যন্ত বিরল। এবিষয়ে খুবই কম প্রমাণ আমাদের কাছে রয়েছে।’

উল্লেখ্য, প্রতিদিনই বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এখনও পর্যন্ত সারা বিশ্বে ৭১ লক্ষের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৪ লক্ষেরও বেশি মানুষের। করোনায় সবথেকে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ আমেরিকা। সেখানে প্রায় ২০ লক্ষ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ১ লক্ষেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে বিশ্বের প্রথম পাঁচটি দেশ হল, আমেরিকা, ব্রাজিল, রাশিয়া, ব্রিটেন ও ভারত।

- Advertisement -

ভারতের মতো বিরাট জনসংখ্যার দেশে করোনা পরিস্থিতি কিভাবে সামাল দেওয়া সম্ভব হবে, সেটা নিয়ে আগেই চিন্তা প্রকাশ করেছিলেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। দেশে  করোনা পরিস্থিতি ক্রমেই নিয়ন্ত্রণে বাইরে চলে যাচ্ছে বলে তাঁদের দাবি। ভারতে এখনও পর্যন্ত ২ লক্ষ ৬৬ হাজার ৫৯৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৪৬৬ জনের। অ্য়াকটিভ কেস ১ লক্ষ ২৯ হাজার ৯১৭টি। সবথেকে যেটা চিন্তার, আক্রান্তদের বেশিরভাগই উপসর্গহীন।

ভারতের পাশাপাশি বিশ্বের বেশিরভাগ দেশেই উপসর্গহীন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। প্রথমে অনেকেরই জ্বর, শ্বাসকষ্ট, কাশি বা গলা ব্যথার মতো করোনা উপসর্গ দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু পরে লালার নমুনা পরীক্ষা করা হলে দেখা যাচ্ছে, তাঁরা করোনা পজিটিভ। বিশ্বে করোনা সংক্রমণ শুরুর দিকে বলা হয়েছিল, সংক্রামিত ব্যক্তির সংস্পর্শে এলেই আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এমনকি উপসর্গহীন করোনা আক্রান্তের সংস্পর্শে এলেও সংক্রামিত হতে পারেন যে কেউ। কিন্তু উপসর্গহীনদের থেকে সংক্রমণ ছড়ানো বা সংক্রামিত হওয়ার ঘটনা বিরল বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। যদিও বিষয়টি নিয়ে চিকিৎসক মহলে দ্বিমত রয়েছে।

সংস্থার করোনা ভাইরাস মোকাবিলা সংক্রান্ত টেকনিক্যাল টিমের প্রধান মারিয়া ভ্যান কারখভ বলেন, ‘বিভিন্ন দেশ থেকে আমরা করোনা সম্পর্কিত রিপোর্ট নিচ্ছি। অনেকে আক্রান্ত হলেও কোনও উপসর্গ থাকছে না। তবে সমস্ত তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা গিয়েছে, উপসর্গহীন করোনা আক্রান্তের থেকে দ্বিতীয় ব্যক্তির শরীরে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ঘটনা খুবই বিরল। তবে উপসর্গহীনদের থেকে সংক্রমণ আদৌ ছড়িয়ে পড়ে কিনা সে বিষয়ে পুরোপুরি নিশ্চিত হতে আমরা আরও গবেষণা করছি।’

অন্যদিকে, সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, আক্রান্তদের মধ্যে যাদেঁর বয়স অল্প বা যাঁদের প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি তাঁদের মধ্যে করোনা উপসর্গ দেখা যাচ্ছে না।