বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা হবু দম্পতির! তদন্তে পুলিশ

49

রায়গঞ্জ: বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করল হবু দম্পতি। মঙ্গলবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে করণদিঘি থানার কর্ণদিঘি এলাকায়। করণদিঘি থানার পুলিশ এসে প্রথমে তাদের করণদিঘি গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে সেখান থেকে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করে চিকিৎসক। দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক অভিজিৎ সরকার উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজে রেফার করেছেন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, হবু দম্পতির নাম কাজল সাহা, উচ্চ মাধ্যমিকের পরীক্ষার্থী, বাড়ি করণদিঘি থানার রসাখোয়া গ্ৰামে। গোকুল সাহা(২৭) পেশায় স্বর্ণ ব্যবসায়ী, বাড়ি বিহারের কাটিহার জেলার বারসই থানার সুধানি গ্রামে। কিশনগঞ্জে সোনার দোকান রয়েছে।

কাজল সাহার বাবা আসিষ সাহা বলেন, ‘বৈশাখ মাসে গোকুল সাহার সঙ্গে আমার মেয়ের বিয়ে ঠিক হয়েছিল। সম্প্রতি রেজিস্ট্রি ম্যারেজ হয়েছে। সোমবার বিকেলে আমার মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে আমার হবু জামাই কিশনগঞ্জ যাওয়ার কথা বলে। এদিন দুপুরে পুলিশের ফোন মারফত জানতে পারি। কর্ণদিঘি পারে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে আমার হবু জামাই ও মেয়ে।’

- Advertisement -

গোকুল সাহার দাদা মকুল সাহা বলেন, ‘আমরা পুলিশ মারফত খবর পেয়ে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসেছি। বৈশাখ মাসে তাদের বিয়ে ঠিক হয়েছিল। রেজিস্ট্রি ম্যারেজ হয়েছে। তবে কি কারণে তাঁরা বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করছিল তা বুঝে উঠতে পারছিনা।’

করণদিঘি থানার আইসি সঞ্জীব সেনাপতি বলেন, ‘খবর পেয়েছি। ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’ রায়গঞ্জ থানার পুলিশ আধিকারিক বলেন, ‘হাসপাতালে একটি পুলিশ কেস হয়েছে। দুজন বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। করণদিঘি থানার পুলিশকে কেস নম্বর দিয়ে ট্রানস্ফার করা হয়েছে।’