বাঁদরের শরীরে কোভ্যাকসিন প্রয়োগে ভালো ফল

717

হায়দরাবাদ: অক্সফোর্ডের টিকা নিয়ে উদ্বেগের মধ্যেই সুখবর দিল হায়দরাবাদের ভারত বায়োটেক। সংস্থাটি জানিয়েছে, তাদের তৈরি করোনা ভাইরাসের টিকা কোভ্যাকসিন প্রাণীর শরীরে ভালো কাজ করছে। শনিবার ভারত বায়োটেকের পক্ষ থেকে টুইটে জানানো হয়, এখন দ্বিতীয় পর্বের পরীক্ষা চলছে। মানুষের শরীরে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের পাশাপাশি প্রাণীদেহে যে সেফটি ট্রায়াল চালানো হচ্ছিল, তার ফল ইতিবাচক। করোনা টিকার জন্য সবার চোখ প্রাথমিক ভাবে ছিল অক্সফোর্ডের টিকার দিকে। কিন্তু ওই টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগে একজন অসুস্থ হয়ে পড়ায় ব্রিটেন আপাতত পরীক্ষা বন্ধ রেখেছে অক্সফোর্ড। একই ফর্মুলায় তৈরি কোভিশিল্ড নামে টিকার ভারতে পরীক্ষা চালাচ্ছিল পুনের সেরাম ইনস্টিটিউট। কেন্দ্রীয় ওষুধ নিয়ামক সংস্থার নির্দেশ মেনে এই সংস্থাও সাময়িকভাবে বন্ধ রেয়েছে টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ। এই প্রেক্ষিতে ভারত বায়োটেকের ঘোষণা যথেষ্ট আশাপ্রদ।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ (আইসিএমআর) এবং পুনের ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনালের যৌথভাবে তৈরি এই কোভ্যাকসিন মানুষ ছাড়াও অন্যান্য স্তন্যপায়ীদের শরীরে ইতিবাচকভাবে কাজ করছে জানার পর নতুন করে উৎসাহ-উদ্দীপনা তৈরি হয়েছে। একটি টুইটে ভারত বায়োটেক শনিবার জানিয়েছে, চারটি দলে ভাগ করে ২০টি রিস্যাস ম্যাকাস প্রজাতির বাঁদরের ওপরে কোভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছিল। প্রত্যাশার চেয়ে ভালো ফল মিলেছে তাতে।

- Advertisement -

সংস্থার আধিকারিক বিপিন এম বশিষ্ঠ বলেন, কোভ্যাকসিন ম্যাকাসের শরীরে প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে পেরেছে। জানা গিয়েছে, রিস্যাস ম্যাকাস শ্রেণির ওই বাঁদরদের একটি দলকে ঔষধি-মূল্যহীন টিকা দেওয়া হয়েছিল। বাকি তিনটি দলকে ১৪ দিনের মধ্যে তিনটি ভিন্ন ধরনের টিকা দেওয়া হয়েছিল। এর ফল যথেষ্ট ভালো। টিকা দেওয়ার পর রিস্যাস বাঁদরদের শরীরে করোনার অ্যান্টিবডি তৈরি হতে শুরু করে। ওই সময়ে শেষ তিনটি দলের বাঁদরদের শরীরে নিউমোনিয়ার লক্ষণ দেখা যায়নি।