মেখলিগঞ্জ হাসপাতালে চালু হচ্ছে কোভিড ওয়ার্ড

161

মেখলিগঞ্জ: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত জনজীবন। এই পরিস্থিতি হাতের নাগালে আনতে মহকুমা ভিত্তিক কোভিড হাসপাতাল খোলার চিন্তা ভাবনা শুরু করেছে রাজ্য সরকার। সেইমতো শীঘ্রই মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে ৪০ শয্যার কোভিড ওয়ার্ড চালু করা হচ্ছে। শুক্রবার মহকুমা হাসপাতালের সুপার কাশিনাথ পাঁজাকে সঙ্গে নিয়ে কোভিড ওয়ার্ডগুলি পরিদর্শন করেন মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারপার্সন তথা স্কুল শিক্ষা দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী পরেশচন্দ্র অধিকারী।

পরিদর্শনের পর মন্ত্রী জানান, করোনা সংক্রমণ বাড়লেও পরিস্থিতি যাতে হাতের নাগালে থাকে তারজন্যে মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালেই কোভিড ওয়ার্ড তৈরি করা হচ্ছে। এর ফলে এলাকার কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে তিনি বাড়ির পাশেই চিকিৎসা করাতে পারবেন। মন্ত্রী আরও জানান, এদিন হাসপাতাল পরিদর্শনের পর বিস্তারিত তথ্য জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিককে জানানো হয়েছে। শীঘ্রই কোভিড ওয়ার্ড চালু হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। প্রসঙ্গত, মেখলিগঞ্জ মহকুমাতে বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বর্তমানে মেখলিগঞ্জ মহকুমায় অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ২১৬।

- Advertisement -

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, কোভিড ওয়ার্ডের পাশাপাশি তৈরি হচ্ছে সারি ওয়ার্ডও। যাঁদের করোনা উপসর্গ থাকবে তাঁদের মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালের প্রথম তলের পুরুষ বিভাগের একদিকে রাখা হবে। এরপর রিপোর্ট পজিটিভ এলে রোগীকে দ্বিতীয় তলের কোভিড ওয়ার্ডে পাঠানো হবে। অন্যদিকে, একই হাসপাতালে জেনারেল রোগী ও কোভিড রোগী থাকলেও চিন্তার কারণ নেই বলে জানান মন্ত্রী পরেশচন্দ্র অধিকারী। তিনি জানান, কোভিড ও জেনারেল ওয়ার্ডের দরজা আলাদা থাকবে। একটা ওয়ার্ড থেকে অন্য ওয়ার্ড সম্পূর্ণ আলাদাই থাকবে বলে জানান তিনি।

মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে সুপার কাশিনাথ পাঁজা জানান, সব কিছু ঠিকঠাক চললে দুই সপ্তাহের মধ্যেই কোভিড ওয়ার্ড চালু করা সম্ভব হবে। জেলা থেকে পর্যাপ্ত চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মী পাঠালেই দ্রুত কোভিড ওয়ার্ড চালু হবে বলে জানান সুপার।