কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের বাজেটের বিরোধিতায় সিপিএমের গণঅবস্থান কর্মসূচি

237

কুমারগ্রাম, ১৩ ফেব্রুয়ারিঃ কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের বাজেটের বিরোধিতা করে কুমারগ্রামে গণঅবস্থান কর্মসূচি করল সিপিএম। বৃহস্পতিবার কুমারগ্রাম বাসস্ট্যান্ডে পথসভা করে দৈনন্দিন দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সরব হন সিপিএম নেতা-কর্মীরা। এলাকাবাসীকে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের আহ্বান জানান তাঁরা। এদিনের এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন দলের জেলা নেতা বিদুৎ গুন, পিন্টু গাঙ্গুলি সহ এলাকার স্থানীয় নেতা-কর্মীরা। বিদ্যুৎ গুন জানান, একলাফে রান্নার গ্যাসে দাম অনেকটা বাড়ানো হয়েছে। ফলে নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের সদস্যরা রান্নার গ্যাস কিনতে সমস্যায় পড়বেন। এদিকে শিক্ষাখাতে উল্লেখযোগ্যভাবে বরাদ্দ কমিয়েছে রাজ্য সরকার। শ্রমিকদের সামাজিক সুরক্ষা, কৃষকদের আয় দ্বিগুন, দুর্নীতি রোধ, বেকারত্ব ঘোচাতে কর্মসংস্থান, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম কম এবং নিয়ন্ত্রণে রাখা, এসব প্রতিশ্রুতির কোনোটাই বাস্তবায়িত হচ্ছে না। উত্তরবঙ্গের সংগঠিত একমাত্র শিল্প চা। এক্ষেত্রেও চা শ্রমিকদের নূন্যতম মজুরি নির্ধারণে কোনোরকম পদক্ষেপ করছে না রাজ্য কিংবা কেন্দ্র সরকার। কার্যত ধ্বংসের মুখে চা শিল্প। বন্ধ চা বাগান খুলছে না। তিনি আরও বলেন, সাধারণ মানুষের কাজ নেই, হাতে টাকা নেই। আর একের পর এক রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা একশ্রেণির ব্যবসায়ীদের হাতে তুলে দেওয়ার ঘৃণ্য পরিকল্পনা চালাচ্ছে মোদি সরকার। ফলে দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি দিনকেদিন তলানিতে এসে ঠেকেছে। তাই ক্ষমতাসীন বিজেপি এবং তৃণমূল কংগ্রেসের মুখোশ খুলে দিতে প্রতিবাদ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। সাধারণত মানুষের মধ্যে রাজনৈতিক চেতনা জাগাতে দলের তরফে কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের সর্বনাশা বাজেটের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে গণঅবস্থান কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে।