কিশনগঞ্জ, ২২ নভেম্বর : শুক্রবার সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ কিশনগঞ্জ স্টেশনে দুষ্কৃতীর হামলায় গুরুতর জখম হলেন সিনিয়র টিকিট কালেক্টর রাজেশ কুমার এবং আরও দু-জন। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সকালে এনকোয়ারির সামনে রাজেশ কুমার ডিউটি রোস্টার দেখার সময় পিছনের দরজা দিয়ে ঢুকে একটি পেট্রোল বোমা মারে মহম্মদ ইশতিয়াক নামে ওই দুষ্কৃতী। মারাত্মভাবে জখম হন সিনিয়র টিকিট কালেক্টর। এরপর টিকিট কাউন্টার লক্ষ্য করে ইশতিয়াক দ্বিতীয় বোমা ছোঁড়ে। মুহূর্তের মধ্যে স্টেশনে প্রবল হইচই শুরু হয়। ইশতিয়াক ততক্ষণে আরও দুটি বোমা মারে। তাতে আরেকজন জখম হন। একজন টোটোচালক তাকে বাধা দিতে এগিয়ে এলে তাকে ইশতিয়ার পেটে বেপরোয়াভাবে ছুরি মারে। মাটিতে লুটিয়ে পড়েন ওই টোটোচালক। এই সময় জনতা তাকে ধরে ফেলে। শুরু হয় গণপিটুনি। আরপিএফ এবং জিআরপি ততক্ষণে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়। ইশতিয়াককে উদ্ধার করে আনা হয়।

রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, জিআরপির কাছে ইতিমধ্যে অভিযোগ দায়ের করেছেন কিশনগঞ্জের স্টেশন ম্যানেজার। রেল পুলিশ এবং আইবি ধৃতকে জেরা শুরু করেছে। তবে এখনও সে মুখ খোলেনি। কেন সে স্টেশনের টিকিট কাউন্টারে হামলা চালাল তা নিয়ে ধোঁয়াশায় পুলিশ ও গোয়েন্দারা। তবে, রেল বা পুলিশ কেউই এখনও সরকারিভাবে কোনো বিবৃতি দেয়নি।

ছবি- বোমায় জখম কিশনগঞ্জ স্টেশনের সিনিয়র টিকিট কালেক্টর।

তথ্য ও ছবি- শক্তিপ্রসাদ জোয়ারদার