দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে বিভাগ খোলা, চিকিৎসক নেই

প্রসেনজিৎ সাহা, দিনহাটা : একদিকে চিকিৎসক সংকট, আরেকদিকে একাধিক চিকিৎসক অসুস্থ। এই জোড়া সমস্যায় ধাক্কা খাচ্ছে দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে বহির্বিভাগের চিকিৎসা পরিষেবা। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, চিকিৎসক সংকট থাকলেও তাদের পরিষেবায় কোনও খামতি নেই। কিন্তু বাস্তবচিত্র অন্যরকম দেখা যাচ্ছে। দিনহাটা হাসপাতালের বহির্বিভাগে গিয়ে দেখা গেল চক্ষু বিভাগ, অর্থোপেডিক বিভাগ যেমন বন্ধ রয়েছে, তেমনই কিছু বিভাগ খোলা রয়েছে কিন্তু চিকিৎসকের দেখা নেই। এর অন্যতম কারণ হিসেবে উঠে এসেছে, দীর্ঘদিন ধরে চলতে থাকা হাসপাতালের চিকিৎসক সংকটের বিষয়টি। একদিকে যখন চিকিৎসক সংকট চলছে, তখন আরেকদিকে হাসপাতালের একাধিক চিকিৎসক অসুস্থ থাকায় আরও সমস্যা হয়েছে।

মহকুমা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গিয়েছে, বর্তমান হাসপাতালের শয্যাসংখ্যা ৩০০-র কাছাকাছি। সেই পরিসংখ্যান অনুযায়ী, হাসপাতালে ৬২ জন চিকিৎসকের প্রয়োজন। কিন্তু সেখানে রয়েছেন ২৯ জন। তাঁদের মধ্যে তিনজন অসুস্থ এবং তিনজন কোভিড ডিউটিতে রয়েছেন। এর ফলে এখন রয়েছেন ২৩ জন। মাত্র এই কয়েকজন চিকিৎসক নিয়ে হাসপাতালের অন্তর্বিভাগ ও বহির্বিভাগে পরিষেবা দিতে গিয়ে হিমসিম খেতে হচ্ছে তাঁদের। এই ঘটনার প্রভাব পড়ছে হাসপাতালের চিকিৎসা করাতে আসা রোগীদের ওপর। বহির্বিভাগে চিকিৎসক না থাকায় সমস্যায় পড়েছেন বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দারা। চোখের সমস্যা নিয়ে গিতালদহ থেকে এসেছিলেন রফিকুল মিয়াঁ। তিনি জানান, হাসপাতালে এসে দেখতে পান চক্ষু বিভাগ বন্ধ। এরপর ফিরে যেতে বাধ্য হন। আরেক বাসিন্দা দিলীপ সাহা জানান, মহকুমা হাসপাতালের বহির্বিভাগে অর্থোপেডিক ডাক্তার না থাকার সমস্যা দীর্ঘদিনের। তাই হাসপাতালের পরিকাঠামোগত পরিবর্তনের পাশাপাশি কর্তপক্ষের অভ্যন্তরীণ সমস্যাগুলি নিয়ে একটু ভাবা উচিত বলে দাবি করেছেন তিনি।

- Advertisement -

হাসপাতালের চিকিৎসা ব্যবস্থা নিয়ে সরব হয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জনজাগরণ মঞ্চ। তাদের তরফে হিটলার দাস জানান, এই সমস্যার বিষয়টি হাসপাতাল সুপারকে জানানো হলে তিনি সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। কিন্তু সমস্যা এখন একই রয়েছে। দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালের সুপার রণজিৎ মণ্ডল জানান, হাসপাতালের একাধিক বিভাগে চিকিৎসক সংকট রয়েছে। পাশাপাশি কয়েকজন চিকিৎসক অসুস্থ থাকায় সমস্যা একটু বেড়েছে। তবে ইতিমধ্যে স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে তাদের পাঁচজন চিকিৎসক দেওয়া হয়েছে। তাঁরা কাজে যোগদান করলে সমস্যা কিছুটা মিটবে।