টানা ১৮ বছর পর্তুগালের হয়ে গোল রোনাল্ডোর

লুক্সেমবার্গ সিটি : লুক্সেমবার্গের বিরুদ্ধে গোল করে নয়া রেকর্ড ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর। বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের এই ম্যাচ ৩-১ গোলে জিতেছে পর্তুগাল।

টানা ১৮ ক্যালেন্ডার ইয়ারে জাতীয় দলের জার্সিতে গোল করলেন রোনাল্ডো। ২০০৪ সালে ইউরো কাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে গ্রিসের বিরুদ্ধে গোল দিয়ে শুরু। এরপর প্রতি বছর পর্তুগালের হয়ে অন্তত একবার গোল করেছেন তিনি। চলতি বছরে গোলের শুরুটা হল মঙ্গলবার রাতের ম্যাচে। এদিন অবশ্য ফিফা র‌্যাংকিংয়ে ৯৮ নম্বরে থাকা লুক্সেমবার্গের বিরুদ্ধে বেশ ব্যাকফুটে চলে গিয়েছিল পর্তুগাল। ৩০ মিনিটে ডায়নামো কিয়েভের স্ট্রাইকার গার্সন রডরিগেজের গোলে এগিয়ে যায় লুক্সেমবার্গ। কিন্তু প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে দিয়েগো জোটার গোলে সমতা ফেরায় র‌্যাংকিংয়ে পাঁচে থাকা পর্তুগাল।

- Advertisement -

জোটার গোল ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট বলছেন লুক্সেমবার্গের কোচ লুক হল্টজ। দ্বিতীয়ার্ধের পাঁচ মিনিটে স্কোরবুকে নাম তোলেন রোনাল্ডো। আন্তর্জাতিক কেরিয়ায়ে ১০৩ গোল হয়ে গেল তাঁর। ইরানের আলি দাইয়ের রেকর্ড ভাঙার দিকে আরও একধাপ এগোলেন এই পর্তুগিজ কিংবদন্তি। তবে জাতীয় দলের হয়ে শেষ ১৪ গোলের ১০টিই তিনি করেছেন লুক্সেমবার্গ ও লিথুয়ানিয়ার বিরুদ্ধে। এই তথ্য হয়তো কাঁটার মতো বিঁধে থাকবে রোনাল্ডোর মনে। ম্যাচের ৮০ মিনিটে জোয়াও পালহিনিয়ার গোল পর্তুগালের জয় নিশ্চিত করে।

অন্যদিকে, শেষ ম্যাচে রেফারির সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়ে মাঠে অধিনায়কের আর্ম ব্যান্ড ছুড়ে ফেলেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। সার্বিয়ার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে নিলামে উঠল সেই আর্ম ব্যান্ড। স্টেডিয়ামের এক কর্মীর মাধ্যমে ওই সংগঠন ব্যান্ডটি পেয়েছে। এক অসুস্থ শিশুর চিকিৎসার খরচ তোলার উদ্দেশে এই নিলাম। মাস ছয়েছের ওই শিশু শিরদাঁড়ার রোগে আক্রান্ত।