জলের দরে বিকোচ্ছে ফসল, মাথায় হাত কৃষকদের

65
বন্ধ বাজার

 রায়গঞ্জ: সরকারি বিধিনিষেধের জেরে বন্ধ দোকানপাট। আর সেই সুযোগে উত্তর দিনাজপুরের সাধারণ চাষিদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে মর্জি মত জলের দরে ফসল কিনছে মজুতদাররা। এর ফলে নিজেদের উৎপাদিত মরসুমি শস্য খোলা বাজারে বিক্রি না করতে পেরে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন চাষিরা। করোনা আবহের শুরু সময় থেকেই একপ্রকার জলের দরে ফসল বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন চাষিরা। হেমতাবাদ বিধানসভা কেন্দ্রের মহিনীগঞ্জের প্রবীন কৃষক জয়প্রসাদ বর্মনের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে নিজের জমি ফসল খোলা বাজারে বিক্রি করা যাচ্ছে না। আর এই সুযোগে জলের দরে পাইকাররা বাড়িতে এসে ফসল কিনে নিয়ে যাচ্ছে। তার মধ্যেও কিছু টাকা বাকি রেখে দিচ্ছে। এখন ধান বেঁচে পরিবারের জন্য দুবেলার খাওয়ার জোগাড় করাই কঠিন হয়ে পড়ছে বলে দাবি জয়প্রসাদ বর্মন সহ অনান্য চাষিদের।

জেলা কৃষি দপ্তরের এক আধিকারিক বলেন, “কৃষকরা তাদের উৎপাদিত শস্য হাটে বিক্রি করতে না পারায় বাড়ি থেকে বিক্রি করছে। কিন্তু দাম নিয়ে সমস্যা হলে কৃষি বিপণন দপ্তরের  আছে তাঁরা অভিযোগ জানাতে পারেন।” তবে এ ব্যাপারে জেলা কৃষি বিপণন দপ্তরের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মিলেনি।

- Advertisement -