ধেয়ে আসছে ইয়াস, দিঘায় শুরু জলোচ্ছ্বাস

209

কলকাতা: শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার দিকে এগোচ্ছে ইয়াস। মঙ্গলবার মৌসম ভবনের ভোর ৫ টার বুলেটিন অনুযায়ী, ইয়াস দিঘা থেকে ৪৫০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে। বুধবার সকালে তা পূর্ব মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলায় আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সেই মতো প্রস্তুতি চলছে। প্রশাসনের পাশাপাশি তৈরি রয়েছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীও। সেইসঙ্গে উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে মাইকিং করা হয়েছে। দিঘা উপকূল খালি করা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

ইয়াসের প্রভাবে মঙ্গলবার সকাল থেকেই ভারী বৃষ্টি শুরু হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরে। উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ঝোড়ো হাওয়া বইছে। জলোচ্ছ্বাস বেড়েছে দিঘায়। মৌসম ভবনের পূর্বাভাস, পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণা, কলকাতা, হাওড়া, হুগলিতেও ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

- Advertisement -

হাওয়া অফিস সূত্রের খবর, বর্তমানে দিঘা থেকে ৪৫০ এবং ওডিশার বালাশোর থেকে ৩৫০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে ইয়াস। দুপুরের মধ্যে তা শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। বুধবার ভোরে ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটারেরও বেশি গতিতে বাংলা ও ওডিশা উপকূলে আছড়ে পড়বে ইয়াস।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস, ঘূর্ণিঝড়ে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। সেখানে মঙ্গলবার গভীর রাত এবং বুধবার সকালে ঘণ্টায় ১০০-১২০ কিলোমিটার গতিতে ঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে। ঝড়ের গতিবেগ ঘণ্টায় ১৪৫ কিলোমিটারেও পৌঁছে যেতে পারে। যার ফলে ভেঙে পড়তে পারে মাটির বাড়ি, গাছ, বিদ্যুতের খুঁটি। সেই আশঙ্কায় প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে স্থানীয় প্রশাসন ও বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে।