ওয়েব ডেস্ক, ২ এপ্রিল : আর কয়েক ঘণ্টার মধ্যের অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় হয়ে ওডিশা উপকূলে আছড়ে পড়তে চলেছে ফণী। মৌসম ভবন থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, আপাতত উপকূল থেকে ৪৫০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে এই ঘূর্ণিঝড়। ঘণ্টায় ৬ কিলোমিটার বেগে তা এগোচ্ছে উপকূলের দিকে। আজ বিকেল নাগাদ গোপালপুর ও চাঁদবালির মাঝামাঝি জায়গায় ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটারের বেশি গতিবেগে ফণী আছড়ে পড়বে। ইতিমধ্যেই বঙ্গোপসাগরে পশ্চিমবঙ্গ ও ওডিশা উপকূল থেকে সমুদ্রে যাওয়া মৎস্যজীবীদের ফিরে আসার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সমুদ্রে টহল দিচ্ছে নৌসেনা জাহাজ। উদ্ধারকাজের জন্য তৈরি রয়েছে তাদের কপ্টার। ওডিশা ও গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে গতকাল থেকেই হলুদ সংকেত জারি করা আছে। ওডিশা থেকে পর্যটকদের ফিরতে বলা হয়েছে। তাঁদের জন্য বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ফণীর আশঙ্কায় ১০৩টি ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। দক্ষিণ-পূর্বে যাওয়া একাধিক দূরপাল্লার ট্রেনকে অন্য পথে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে ফণীর প্রভাবে প্রবল ঝড়বৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে। দিঘা, মন্দারমণির মতো সমুদ্রতটে স্নান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ডুবুরি ও কোস্ট গার্ডরা উপকূল এলাকায় টহল দিচ্ছে।

মৌসম ভবন সূত্রে পাওয়া ঝড়ের অভিমুখ ও গতিবেগ।