সন্দেশখালিতে ডাঁসা নদীর চর থেকে মানুষের খুলি ও হাড় উদ্ধার করল সিআইডি, চাঞ্চল্য

179

বসিরহাট, ১৫ ফেব্রুয়ারিঃ শনিবার সন্দেশখালি থানার টোঙতলা নদীর চরে একটি মানুষের মাথার খুলি এবং নর কঙ্কালের হাড় উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো। খবর পেয়ে রাজ্য গোয়েন্দা দপ্তরের সিআইডি পার্থসারথি বিশ্বাসের নেতৃত্বে ৫ জনের প্রতিনিধি দল ও সন্দেশখালি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছান। উদ্ধার হওয়া সকল কিছুই প্রথমে বসিরহাট জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে কলকাতার ফরেন্সিক ল্যাবরেটরিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। গতবছর ৮ জুন সন্দেশখালি নেজাট থানার ভাঙ্গি পাড়ায় দলীয় পতাকা টাঙিয়ে কর্মীসভা করাকে কেন্দ্র করে, তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধেছিল। বোমাবাজির পাশাপাশি বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি চলেছিল বলে অভিযোগ উঠেছিল। ঘটনায় ২ বিজেপি কর্মী খুন হন। পাশাপাশি তৃণমূল কংগ্রেসের ১ কর্মী মারা যান। যদিও, এই খুনের ঘটনার পেছনে মেছো জেরি দখলের রাজনীতি ছিল বলে অভিযোগ। ওই রাত থেকেই বিজেপি কর্মী দেবদাস মন্ডল নিখোঁজ ছিলেন। তার খোঁজ এখনও পাওয়া যায়নি। ইতিমধ্যেই ওই সংঘর্ষ ঘিরে রাজ্যে এবং কেন্দ্রে তুমুল তরজা লেগেছিল। বিজেপি নেতারা দাবি করেছিলেন, দেবদাস মন্ডলকে পরিকল্পনা মাফিক খুন করা হয়েছিল৷ এরপর নদীতে তাঁর মৃতদেহ ফেলে দেওয়া হয়েছে। এদিন নিখোঁজ দেবদাস মন্ডলের স্ত্রী সুপ্রিয়া মন্ডল উদ্ধার হওয়া মৃতের হাড় দেখার দাবি জানিয়েছেন। পাশাপাশি, সিবিআই তদন্তের আর্জি জানান। বসিরহাটের বিজেপি নেতা শান্তনু চক্রবর্তীও সিবিআই তদন্তের দাবি করেছেন। বছর ঘুরতে চললেও, নিখোঁজ বিজেপি কর্মীর কেন খোঁজ পাওয়া গেল না, তা নিয়ে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন।