হাড়হিম করা খুন, মাটি খুঁড়ে উদ্ধার দেহ

275

পুণ্ডিবাড়ি: মাটি খুঁড়ে উদ্ধার হল চারমাস ধরে নিখোঁজ এক ব্যক্তির দেহ। ঘটনাটি পুণ্ডিবাড়ি থানার ঢাংঢিংগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের উত্তর পেস্টারঝাড় এলাকার। পুলিশ তদন্ত করছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার উত্তর পেস্টারঝাড় এলাকার একটি জঙ্গলে মাটি খুঁড়ে উদ্ধার হয় কালী দাস (৬১) নামে এক ব্যক্তির দেহ। তাঁর বাড়ি গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ইকরচালা গ্ৰামে। তিনি ৩ ফেব্রুয়ারি রাত থেকে নিখোঁজ। তাঁর ভাইপো জীবন দাস ১০ ফেব্রুয়ারি পুণ্ডিবাড়ি থানায় একটি মিসিং ডায়ারি করেন। তারপর প্রায় চার মাস কেটে গেলেও তাঁর খোঁজ মেলেনি। গত মঙ্গলবার পরিবারের সদস্যরা জানতে পারেন, কালী দাস খুন হয়েছেন এবং তাঁর দেহ বাড়ির কাছে একটি জঙ্গলে পুঁতে রাখা আছে। প্রতিবেশী কয়েকজন মিলে তাঁকে খুন করেছে।

- Advertisement -

পুণ্ডিবাড়ি থানা সূত্রের খবর, ছিনতাই সহ আরও বেশ কিছু অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগে কয়েকদিন আগে পুলিশ আশিস বর্মন (২১) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে খুনের ঘটনা সামনে আসে। খুনে জড়িত থাকার অভিযোগে সোমবার গভীর রাতে সুভাষ দাস (৪৬), রাজা দাস (১৯), দেবাশিস রায় (২০) ও প্রসেনজিৎ বর্মন (২২) নামে আরও ৪ জনকে গ্ৰেপ্তার করে পুলিশ। ধৃতরাও ইকরচালার বাসিন্দা। শুক্রবার অভিযুক্তদের নিয়ে উত্তর পেস্টারঝাড় এলাকায় যায় পুলিশ। পুণ্ডিবাড়ি থানার আধিকারিকদের সঙ্গে জেলা পুলিশের কয়েকজন আধিকারিক ও কোচবিহার-২ এর বিডিও এদিন ঘটনাস্থলে হাজির ছিলেন। তাঁদের উপস্থিতিতে জঙ্গল থেকে উদ্ধার হয় কালী দাসের দেহ।

তবে কী কারণে ওই ব্যক্তিকে খুন করা হয়েছে, তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়েছে। দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছে মৃতের পরিবার। যদিও বিষয়টি নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি পুলিশ কর্তারা।