সিভিক ভলান্টিয়ারের রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার

372

ফাঁসিদেওয়া, ২২ অগাস্টঃ সিভিক ভলান্টিয়ারের রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল। যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে খুনের অভিযোগ উঠেছে। মৃত সিভিক ভলান্টিয়ার দুলাল কর্মকার (৩০) বিধাননগর তদন্ত কেন্দ্রে কর্মরত ছিলেন। পুলিশ ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত শুরু করেছে।

রবিবার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের বিধাননগর সংলগ্ন বেদানগছ এলাকায় তাঁর বাড়ির কাছেই মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। দুলাল মাসখানেক আগে বিধাননগর তদন্ত কেন্দ্রে যোগদান করেছিলেন। এর আগে তিনি গোয়ান্দা বিভাগের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ঘটনার খবর পেয়ে বিধাননগর পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

- Advertisement -

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতদেহর শরীরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করার চিহ্ন ছিল। তবে, সিভিক ভলান্টিয়ারের মৃত্যুর কারণ এখনও পর্যন্ত স্পষ্ট নয়। বাড়িতে তাঁর স্ত্রী এবং ৩ বছরের এক কন্যা সন্তান রয়েছে। ঘটনায় এলাকাজুড়ে রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

মৃতের দাদা রাজকুমার বলেন, কারও সঙ্গে শত্রুতা ছিল বলে জানি না৷ গতরাতে ভাই বাড়ির বাইরে বেরিয়েছিল। এরপর তাঁর মৃতদেহ রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখি। মাথা এবং হাতে ধারালো অস্ত্রের দিয়ে আঘাতের চিহ্ন ছিল। পরিবারের সদস্যরা ঘটনার তদন্ত করে, দোষীদের শাস্তির দাবি করেছেন।