রাঙ্গালিবাজনায় প্রাক্তন শিক্ষকের মৃত্যু, অ্যান্টিজেন টেস্টে মিলল করোনার অস্তিত্ব   

1373

রাঙ্গালিবাজনা: সোমবার আলিপুরদুয়ার জেলার মাদারিহাট-বীরপাড়া ব্লকের রাঙ্গালিবাজনা মোহনসিং হাইস্কুলের প্রাক্তন শিক্ষক সুখেন্দ্রনাথ বর্মন (৬৫)-এর মৃত্যু হয়। তিনি হাই ব্লাড প্রেশার ও সুগারের সমস্যায় ভুগছিলেন। এদিন অসুস্থ অবস্থায় তাঁকে মাদারিহাট গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে তাঁর লালার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাঁর শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মেলে বলে ব্লক স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রের খবর। আলিপুরদুয়ারের কোভিড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে সুখেন্দ্রবাবুর মৃত্যু হয়। তাঁর মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তবে সূত্রের খবর, করোনা সংক্রামিত হয়ে নয়, প্রাক্তন শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে কো-মর্বিডিটির কারণে। মাদারিহাটের ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক দেবজ্যোতি চক্রবর্তী জানান, অ্যান্টিজেন টেস্টে ওই ব্যক্তির শরীরে করোনার অস্তিত্ব মিলে। তাঁর শেষকৃত্য সহ যাবতীয় বিষয়ে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সিদ্ধান্ত নেবে।

রাঙ্গালিবাজনা মোহনসিং হাইস্কুলে দীর্ঘদিন ইংরেজি বিষয়ে শিক্ষকতা করেছেন সুখেন্দ্রবাবু। দীর্ঘদিন সহকারি প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বও সামলেছেন। জন্মসূত্রে শালকুমারহাটের বাসিন্দা হলেও পরে তিনি মোহনসিং হাইস্কুলের কাছেই পাকাপাকিভাবে থেকে যান। তাঁর ছাত্রী তথা পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের উপ সচিব মুক্তা নার্জিনারী শোকবার্তায় বলেন, স্যারের গ্রামার পড়ানো কখনও ভুলব না। তাঁর প্রয়াণে আমি মর্মাহত। রাঙ্গালিবাজনা মোহনসিং হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক অমল রায় বলেন, সুখেন্দ্র বর্মন আমারও শিক্ষক ছিলেন। তাঁর চলে যাওয়া আমাদের কাছে অপূরণীয় ক্ষতি।

- Advertisement -

উল্লেখ্য, সুখেন্দ্রবাবুর বাড়ির পাশেই পশ্চিম খয়েরবাড়ির কলোনীপাড়ায় বেশ কয়েকজন সংক্রামিত হয়েছেন। সেখানে বেশ কয়েকটি অ্যাকটিভ কেস রয়েছে। কলোনীপাড়া এখনও কনটেনমেন্ট জোন হিসেবে রয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের‌ একাংশের অভিযোগ, সংক্রামিত ব্যক্তিদের পরিবারের কিছু লোকজন অবাধে ঘোরাঘুরি করছেন। কনটেনমেন্ট জোনের নিয়ম তাঁরা মানছেন না।

মাদারিহাটের ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক দেবজ্যোতি চক্রবর্তী বলেন, সম্প্রতি যাঁরা মৃত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিলেন নির্দিষ্ট সময় পর তাঁদের লালার নমুনা পরীক্ষা করা হবে।