সদ্যোজাতের মৃত্যুতে উত্তেজনা, হাসপাতালে তাণ্ডব পরিবারের

108

রতুয়া: চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মারধর ও ভাঙচুরের অভিযোগ রোগীর আত্মীয় পরিজনদের বিরুদ্ধে। রতুয়া-১ ব্লকের বাহারাল গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত ডারা গ্রামের অন্তঃসত্ত্বা মুন্নি খাতুন গত মঙ্গলবার পেটে যন্ত্রণা নিয়ে রতুয়া গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি হন। মঙ্গলবার তিনি এক পুত্রসন্তানের জন্ম দেন। অভিযোগ, হাসপাতাল থেকে ছুটির পর বাড়িতেই মৃত্যু হয় সদ্যোজাতের। এরপরই পরিবারের লোকজন সদ্যোজাতের দেহ নিয়ে হাসপাতালে এসে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করেন বলে অভিযোগ। একই সঙ্গে স্বাস্থ্যকর্মীদের মারধর করারও অভিযোগ উঠেছে। ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। হাসপাতালের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। রতুয়া ১-এর মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক মাসুদ রহমান জানান, বাড়িতে থাকাকালীন শিশুটির হয়তো কোনও কারণে মৃত্যু হয়েছে। অযথা চিকিৎসকদের ওপর দোষারোপ করা হচ্ছে। কর্তব্যরত চিকিৎসক অর্ণব রায় জানান, তাঁরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।