করোনা আক্রান্ত বিরাট-সতীর্থ দেবদূতও

চেন্নাই : কোভিড-আতঙ্ক আরও গভীরে।

নীতীশ রানা, অক্ষর প্যাটেলের পর এবার দেবদূত পাড়িক্কাল। চতুর্দশ আইপিএলের তৃতীয় ক্রিকেটার, যাঁর শরীরে হানা দিল কোভিড ভাইরাস। ৯ এপ্রিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের প্রথম ম্যাচ। তার প্রাক্কালে এদিন দুঃসংবাদ বিরাট ব্রিগেডের জন্য।

- Advertisement -

রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর, বাঁহাতি ওপেনার দেবদূতকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। শুধু মুম্বই ম্যাচই নয়, পরবর্তী কয়েকটা ম্যাচেও দেবদূতকে পাচ্ছে না আরসিবি। নিঃসন্দেহে বড়ো ধাক্কা। গত আসরে দেবদূত আইপিএল অভিষেকেই ৪৭৩ রান করেন। এবার ঘরোয়া ক্রিকেটে কর্ণাটকের হয়ে বিজয় হাজারে ট্রফিতে ৭৩৭ রান করেন ১৪৭.৪০ ব্যাটিং গড়ে। বিরাট-দেবদূত ওপেনিং জুটি নিয়ে স্ট্র‌্যাটেজি গুলিয়ে দিল কোভিড-১৯।

অক্ষর ও মাঠকর্মীদের করোনা আক্রান্তের ঘটনা ছিল মুম্বই কেন্দ্রিক। ওযাংখেড়েকে ঘিরে অনিশ্চয়তা তৈরি করে গতকালের একের পর এক কোভিড-পজিটিভের খবর। দেবদূতের ঘটনা সেখানে চেন্নাইয়ে। তামিলনাড়ু রাজধানীতেই আরসিবি তাদের ডেরা বেঁধেছে। ফলে মুম্বইয়ে পর চেন্নাইয়ে সংক্রমণের হানা উদ্বেগ বাড়াল।

এদিকে, মুম্বই থেকে ম্যাচ সরানোর ভাবনার মাঝে বোর্ডের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন মহম্মদ আজহারউদ্দিন। জানিয়ে দিলেন, বিকল্প কেন্দ্র হিসেবে হায়দরাবাদ প্রস্তুত আইপিএলের ম্যাচ আয়োজন করতে প্রস্তুত। বোর্ডের উদ্দেশ্যে এক টুইট বার্তায় হায়দরাবাদ ক্রিকেট সংস্থার সভাপতি আজহারউদ্দিন বলেন, কঠিন এইসময়ে পরস্পরের পাশে থাকা উচিত। নিরাপদ ও সুষ্ঠুভাবে আইপিএলের ম্যাচ আযোজন ও বোর্ডকে সাহায্যের জন্য হায়দরাবাদ ক্রিকেট সংস্থা পুরোদস্তুর প্রস্তুত।

মুম্বই ক্রিকেট সংস্থা অবশ্য আত্মবিশ্বাসী, সেরকম কিছুর প্রযোজন পড়বে না। সংস্থার সচিব সঞ্জয় নায়েক বলেন, ওয়াংখেডে স্টেডিয়াম খালি করে দেওয়া হয়েছে। সোমবার বোর্ডের তরফে সমস্ত মাঠকর্মীর করোনা পরীক্ষা করা হবে। সুস্থ মাঠকর্মীরা থাকবেন স্টেডিয়ামে, জৈব সুরক্ষা বলয়ে। সমস্ত ম্যাচ হওয়া পর্যন্ত তারাও বলয়ের মধ্যে থাকবেন। যেহেতু সব ম্যাচ দর্শকহীন। আমরা আশাবাদী, মুম্বইয়ে ম্যাচ আয়োজনে কোনও সমস্যা হবে না। প্র‌্যাকটিস ইতিমধ্যেই পিচ তৈরি। ২-৩ দিনের মধ্যে মূল উইকেটও প্রস্তুত হয়ে যাবে।