বুথে বুথে ঘুরলেন দেবেন রায়ের স্ত্রী, ছায়া সঙ্গী মেয়ে

83

রায়গঞ্জ: গত বিধানসভা নির্বাচনে স্বামী দেবেন রায়ের হয়ে এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে ছুটেছেন চাঁদিমা রায়। তবে এবছর অন্য চিত্র। স্বামীর মৃত্যুর পর বিজেপির তরফে হেমতাবাদ আসনে তরফে প্রার্থী খোদ চাঁদিমা রায়। ভোটের দিন তাঁর ছায়া সঙ্গী হিসেবে ঘুরলেন মেয়ে সৃষ্টি।

ষষ্ঠ দফার ভোটের দিন সকাল থেকেই বুথে বুথে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায় চাঁদিমা রায়কে। সকলেই কেউ চাঁদিমার হাতে হাত রেখে, চোখে চোখ রেখে বলেছেন, দিদি আপনার পাশে আছি আমরা। এদিন রায়গঞ্জ থেকে ৩২ কিলোমিটার দূরে বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী বহর গ্রামে গিয়ে দেখা গেল বিভিন্ন বুথে তিনি ঘুরছেন। তার বক্তব্য, আমার স্বামীকে যারা মেরেছে তাদের শাস্তি দেওয়া ও সিবিআই তদন্তের দাবিতে অনড় থেকে এই বিধানসভা ভোট লড়ছি। যেখানেই যাচ্ছি মনে হচ্ছে আমার স্বামী ছায়ার মতন রয়েছে।

- Advertisement -

চাঁদিমাদেবীর দাবি শুধু আমার নয় হেমতাবাদ বিধানসভা কেন্দ্রের সমস্ত বাসিন্দারা চাইছে আমার স্বামীর খুনিরা শাস্তি পাক। চাঁদিমা দেবীর কথায়, ২০১৮ সালে পঞ্চায়েত ভোটের নামে প্রহসন করা হয়েছিল। একাধিক জেলা পরিষদ, পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যরা ছাপ্পা ভোট দিয়ে জিতেছিল। এবার যাতে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা রিগিং করতে না পারে সেই কারণেই বুথে বুথে ঘুরে বেড়িয়েছি।

চাঁদিমা রায়ের মেয়ে সৃষ্টি রায় বলেন, ‘বাবাকে হারিয়েছি। মা’কে যাতে হারাতে না হয় সেজন্যই মায়ের সঙ্গে সঙ্গী আমি।’