ধোনির নেতৃত্বেই এগোবে সুপার কিংস

সংগৃহীত

দুবাই : ২০২২-এর আইপিএলেও কি মহেন্দ্র সিং ধোনিকে চেন্নাই সুপার কিংসের জার্সিতে দেখা যাবে? আবারও কি ক্যাপটেন কুলের নেতৃত্বে মেগা আসরে নামবে হলুদ ব্রিগেড? ফাইনাল শেষে যে উত্তরটা ঘুরিয়ে দিয়ে দিয়েছেন এমএস। ইঙ্গিত দিয়েছেন, ফের চেন্নাইয়ে জার্সিতে আইপিএলে নামার।

এদিন তা আরও পরিষ্কার করে সিএসকের এক শীর্ষকর্তা জানিয়েছেন, ২০২২-এর আইপিএলে খেলবেন ক্যাপটেন কুল। প্রিয় থালাকে দলে রাখার জন্য আগামী নিলামে মাহির জন্য প্রথম রিটেনশন কার্ড ব্যবহার করবে চেন্নাই। দাবি করেছেন, রিটেনশন তো হবেই। কিন্তু কতজনকে রিটেন করা হবে, এখনও চূড়ান্ত নয়। তবে একটা ব্যাপার নিশ্চিত। প্রথম রিটেনশন কার্ড ব্যবহার করা হবে মাহির জন্য।

- Advertisement -

চেন্নাই ফ্র‌্যাঞ্চাইজির সংশ্লিষ্ট কর্তাটির দাবি, সিএসকে নামক জাহাজের এখনও অধিনায়কের প্রয়োজন রয়েছে। তিনি নিশ্চিত, বাইশের আইপিএলেও জাহাজের হাল ধরবেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। বলার কথা, মাহিও একাধিকবার ঘুরিয়ে সেকথা শুনিয়েছেন। দ্বিতীয় পর্বের শুরুতেই বলেছিলেন, অবসরটা তিনি চেন্নাইয়ে নিতে চান।

চেন্নাইয়ের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে ফাইনাল শেষেও মাহি বলেন, আগামী লিগে নতুন দুটো দল আসছে। আমাদের ঠিক করতে হবে সিএসকের জন্য কী ভালো হবে। মূল টার্গেট হওয়া উচিত, শক্তিশালী কোর গ্রুপটাকে ধরে রাখা। যাতে পরবর্তীতে সমস্যায় না পড়তে হয়। একইসঙ্গে গুরুত্ব দিতে হবে, কারা কারা আগামী ১০ বছর দলে অবদান রাখতে পারবে।

চতুর্থ আইপিএল জয়ের বিজয় উৎসব এখনই হচ্ছে না হলুদ ব্রিগেডের। আজ একথা জানিয়েছেন দলের সিইও কাশি বিশ্বনাথন। সিদ্ধান্তের নেপথ্যে মহেন্দ্র সিং ধোনি। বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের মেন্টর হিসেবে আমিরশাহিতেই রয়ে গিয়েছেন। তাই মাহির ফেরা না পর্যন্ত বিজয় উৎসব করা হবে না, সিদ্ধান্ত সিএসকে কর্তৃপক্ষের। কাশি বিশ্বনাথন এদিন বলেন, অধিনায়কের দেশে ফেরা পর্যন্ত অপেক্ষা করব। আসলে মাহিকে ছাড়া সেলিব্রেশন সম্ভব নয়।