‘সেপটিক শকে’ প্রণব, অবনতি স্বাস্থ্যে

633
ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: আবারও অবনতি ধরা পড়ল প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের স্বাস্থ্যে। সোমবার দিল্লির সেনা হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, এই মুহুর্তে ‘সেপটিক শকে’ রয়েছেন তিনি। গভীর কোমাচ্ছন্ন অবস্থায় জরুরি ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রয়েছেন তিনি। সপ্তাহের প্রথমদিনেই প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির স্বাস্থ্যের অবনতিকে কেন্দ্র করে ফের দুশ্চিন্তার ছায়া নেমে এল সারাদেশে।

ডাক্তারি পরিভাষায় ‘সেপটিক শক’ কিন্তু যথেষ্টই উদবেগজনক একটি বিষয়। শরীরে একাধিক অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকল হলে বিপদজনকভাবে শরীরে রক্তচাপ নিম্নমুখী হয়, সারাদেহে ছড়ায় সংক্রমণ। রোগীর হাত-পা ফ্যাকাশে, ঠান্ডা হয়ে আসে এবং শ্বাসকষ্ট ও প্রস্রাবে সমস্যা দেখা দেয়। অবিলম্বে বিশেষজ্ঞ’দের রায় নিয়ে জরুরি চিকিৎসা শুরু করাই এর প্রাথমিক বিধান।

- Advertisement -

সোমবার দিল্লির আর্মি রিসার্চ অ্যাণ্ড রেফারেল হাসপাতালের মেডিকেল বুলেটিন জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় অবনতি দেখা গেছে প্রণববাবুর স্বাস্থ্যে। ফুসফুসে সংক্রমণের জন্য সেপটিক শকে আছেন তিনি। বিশেষজ্ঞরা নজর রাখছেন তাঁর স্বাস্থ্যের প্রতি। এখনো গভীর কোমাচ্ছন্ন তিনি। ভেন্টিলেটরেই রয়েছেন প্রণব মুখার্জি।

প্রায় ২১ দিন হয়ে গেল দিল্লির আর্মি রেফারেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। ৯ অগাস্ট দিল্লির বাসভবনে শৌচালয়ে পড়ে মাথায় গুরুতর চোট পান তিনি। তাঁকে ভর্তি করা হয় দিল্লির সেনা হাসপাতালে। মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণ ধরা পড়লে জরুরি অস্ত্রোপচার করা হয় তাঁর। সেই সময়ে জানা যায় করোনা আক্রান্ত তিনি। এরপর আর সুস্থ হয়ে ওঠেননি প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। কোমায় চলে যান তিনি। ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রাখা হয় তাঁকে। এরপর কখনো উন্নতি, কখনো অবনতি ধরা পড়ে তাঁর স্বাস্থ্যে।

মাঝে চিকিৎসায় সাড়াও দিচ্ছিলেন তিনি। গত সপ্তাহে ফুসফুস ও কিডনিতে সমস্যা ধরা পড়ে তার। যদিও স্বাস্থ্যজনিত প্যারামিটার স্থিতিশীল ছিল প্রণববাবুর। ডাক্তারি পরিভাষায় তিনি ‘হিমোডায়নামিক্যালি স্টেবল’ ছিলেন। কিন্তু সোমবার ফের তাঁর স্বাস্থ্যের অবনতির কথা সামনে এল। এখনও কোমায় ও ভেন্টিলেটর সাপোর্টে আছেন ৮৪ বর্ষীয় প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। রয়েছেন ২৪ ঘণ্টা বিশেষ মেডিকেল টিমের পর্যবেক্ষণে। আবারও তাঁর আরোগ্য কামনায় প্রার্থনা শুরু হয়েছে সারাদেশে।