ন্যূনতম বাস ভাড়া ১৪ টাকা করার দাবি

191

কলকাতা: ন্যূনতম বাস ভাড়া ১৪ টাকা করার দাবি উঠল। কলকাতা ও শহরতলিতে বাসভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে সরব হল বাস মালিকদের ৬টি সংগঠন। বুধবার শরত্‍ বসু রোডে ‘মিনিবাস অপারেটর্স কো-অর্ডিনেশন’ কমিটির কার্যালয়ে বাস মালিক সংগঠনগুলির এক বৈঠকে ন্যূনতম বাসভাড়া ১৪ টাকা করার দাবি জানানো হয়েছে। বৈঠকে ‘জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেটস’, ‘বেঙ্গল বাস সিন্ডিকেট’, ‘বাস-মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন’, ‘বাস-মিনিবাস সমন্বয় সমিতি’, ‘সিটি সাবার্বান বাস সার্ভিস’ এবং ‘মিনিবাস অপারেটর্স কো-অর্ডিনেশন কমিটি’র নেতারা উপস্থিত ছিলেন। বাস ভাড়া বৃদ্ধির ব্যাপারে সরকার সিদ্ধান্ত না নিলে ১৫ জানুয়ারির পর আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাস মালিক সংগঠন।

বাসমালিকদের দাবি, গত কয়েক মাসে ডিজেল প্রতি লিটারে ১০ টাকা বেড়েছে। কিন্তু যাত্রী সংখ্যা বাড়েনি। লোকাল ট্রেন চললে যাত্রী সংখ্যা বাড়বে বলে যে ধারণা হয়েছিল তাও ভ্রান্ত প্রমাণিত হয়েছে। ফলে বাস ভাড়া বৃদ্ধি ছাড়া উপায় নেই। এ বিষয়ে জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেটের সাধারণ সম্পাদক তপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘লকডাউনের পর বাস চালানোর জন্য সরকার যে সব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তার কোনওটাই পালন করেনি। যাত্রী সংখ্যা কম হওয়ায় কোনও রুটের সমস্ত বাস এক দিনে রাস্তায় নামানো যাচ্ছে না। যে সব বাস চলছে তাতেও লোকসান হচ্ছে বাস মালিকদের।’

- Advertisement -

পরিবহণ বিষয়ক কমিটির সভাপতি মদন মিত্র বলেন, ‘প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বাস সমস্যা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কোনও কথাই বলেনি। তাই সমস্যার সমাধানও হয়নি। এই সমস্যা তাঁর তৈরি। আমি ওদের সঙ্গে কথা বলে সমস্যার সমাধান করব।’ লকডাউনের পর বিধিনিষেধ মেনে বাস পরিষেবা চালুর নির্দেশ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘বাস ভাড়া মালিকরা ঠিক করবেন। এরপর নিজেদের ইচ্ছামত ভাড়া নিতে থাকে বিভিন্ন বাসরুট।’ এতে বিক্ষোভ তৈরি হলে মুখ্যসচিব জানান, বাসভাড়া বাড়ানো যাবে না। এরপর ধীরে ধীরে বাস বসিয়ে দিতে শুরু করেন বাস মালিকরা। সেই থেকে বাসভাড়া নিয়ে জটিলতা চলছে।