সামগ্রী গায়েব করার অভিযোগে অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীকে আটকে রেখে বিক্ষোভ

169

সিতাই: সামগ্রী গায়েব করার অভিযোগে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের কর্মীকে আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখালেন অভিভাবকেরা। রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে দিনহাটা-১ ব্লকের বড়শৌলমারি গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত বাত্রিগাছ সাবেক ছিটে। এদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বিক্ষোভ চলে। পরে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের হস্তক্ষেপে বেলা একটা নাগাদ বাসিন্দারা বিক্ষোভ তুলে নেন।

স্থানীয় সূত্রে খবর, দিনহাটা-১ ব্লকের অন্তর্গত বাত্রিগাছ সাবেক ছিট এলাকার ৪২৮ নং অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের কর্মী তাপসী রায়কে এদিন সকাল সাড়ে ন’টা থেকে আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখানো হয়। অভিভাবকদের অভিযোগ, ওই কর্মী মাসের পর মাস শিশুদের জন্য বরাদ্দ খাদ্য সামগ্রীর পুরোটা বিতরণ না করে তার কিছু অংশ গায়েব করে দিচ্ছেন। তাই এদিন তাঁরা ওই কর্মীকে আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখান।

- Advertisement -

বিক্ষুব্ধ অভিভাবকদের মধ্যে নিলুফা বিবি, আনিচা বিবি, ফজলুর রহমান প্রমুখ প্রত্যেকেই জানান, গত দুই-তিন মাস ধরে তাঁদের শিশুদের জন্য বরাদ্দ খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হচ্ছে না। ওই কর্মী তা আত্মসাৎ করছেন। অপর অভিভাবক আনোয়ারা বিবি বলেন,‘এই কেন্দ্রের কর্মী আমাদের শিশুদের জন্য বরাদ্দ চাল, ডাল ও ছোলার বেশকিছু পরিমাণ মাসের পর মাস গায়েব করে দিচ্ছেন।

তিমি আরও বলেন, ‘গতকাল আমরা প্রায় একশো জন অভিভাবক কেন্দ্রে খাদ্য সামগ্রী নিতে এসে দেখি যে সামগ্রী প্রায় অর্ধেক। তখন সন্দেহ হওয়ায় আমরা তাঁর কাছ থেকে সরকারি রশিদ নিয়ে দেখি যে রিসিভ করা রশিদের হিসেবে খাদ্য সামগ্রী ঘাটতি আছে। এরপর স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যকে জানাই। তারপর এদিন আমাদের ডাকা হয়। এদিন এসে দেখা যায় ওই কর্মী তাঁর বাড়িতে রাখা অবশিষ্ট সামগ্রী নিয়ে এসেছেন। কাজেই ওই কর্মীর সামগ্রী গায়েব করার বিষয়টি পরিষ্কার হওয়ায় আমরা তাঁকে আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখাই।’

খবর পেয়ে অঙ্গনওয়াড়ি সুপারভাইজার তৃষ্ণা রায় সিংহ ঘটনাস্থলে যান। অবশেষে স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য নূরনবি মিয়ার হস্তক্ষেপে বিক্ষোভ উঠে যায়। অন্যদিকে, দিনহাটা-১ ব্লকের সিডিপিও রবিন তামাং বলেন, ‘বিষয়টির তদন্ত করে উপযুক্ত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’