বহিরাগত নয় স্থানীয়দের কাজের দাবিতে বিক্ষোভ আইএনটিটিইউসির

81

রাজগঞ্জ: দোরগোড়ায় ভোট। আর বহিরাগত ইস্যুতে রাজগঞ্জের এক নির্মীয়মাণ কারখানায় আন্দোলনে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন। বৃহস্পতিবার স্থানীয় নির্মাণ শ্রমিকদের কাজে নেওয়ার দাবিতে ওই কারখানার সামনে বিক্ষোভ দেখায় আইএনটিটিইউসি। ভোটের মুখে এই ঘটনায় এলাকা বেশ সরগরম হয়ে ওঠে। স্থানীয় শ্রমিকদের কাজে না নেওয়া হলে ধর্নায় বসা হবে বলে সংগঠনের জলপাইগুড়ি জেলার কার্যকরি সভাপতি তপন দে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। যদিও মালিক পক্ষের দাবি, স্থানীয় শ্রমিকদেরই কাজে নেওয়া হয়েছে। অনেক দিন থেকে অযথা ঝামেলা করা হচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে প্রকল্পটি বন্ধ করে দেওয়া হবে।

রাজগঞ্জের কালীনগর এলাকায় প্রায় দেড় বছর থেকে একটি কারখানা তৈরির কাজ চলছে। প্রায় ৩০–৪০ জন নির্মাণ শ্রমিক কাজ করছেন। প্রায় ২০ বিঘা জমিতে প্লাস্টিকের বস্তা তৈরির ওই কারখানা করা হচ্ছে। এদিন সকালে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসির জলপাইগুড়ি জেলার কার্যকরি সভাপতি তপন দের নেতৃত্বে ওই নির্মীয়মাণ কারখানার সামনে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় শ্রমিকরা। কারখানার গেটে সংগঠনের ঝান্ডা লাগিয়ে বেশকিছুক্ষণ বিক্ষোভ চলে। শ্রমিক নেতা তপন দে বলেন, ‘প্রথমে স্থানীয় প্রায় ৪০ জন শ্রমিকে কারখানা নির্মাণের কাজে নেওয়া হলেও ধীরে ধীরে তাঁদেরকে বাদ দিয়ে বহিরাগত শ্রমিক এনে কাজ করা হচ্ছে। কারখানা কর্তৃপক্ষ নিজেদের মর্জিমত স্থানীয় শ্রমিকদের কাজে নিচ্ছেন, কখনও বসিয়ে দিচ্ছেন।’ তিনি বলেন, ‘কারখানা চালু হলে এলাকার আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন হবে। তাই কারখানা হোক তা চাই। কিন্তু স্থানীয় শ্রমিকদের বাদ দিয়ে বহিরাগত শ্রমিক এনে কাজ করা হলে মেনে নেওয়া হবে না। প্রয়োজনে শ্রমিকদের সার্থে ধর্নায় বসা হবে।’

- Advertisement -

এব্যাপারে কারখানার এক কর্ণধার গোপাল আগরওয়াল বলেন, ‘বহিরাগত শ্রমিকদের কাজে নেওয়া হয়নি। প্রথম থেকে স্থানীয় শ্রমিকরা কাজ করছে। দক্ষ শ্রমিকের প্রয়োজনে কয়েকজন শ্রমিককে হেরফের করা হয়েছে। কিন্তু স্থানীয় কয়েকজন শ্রমিক সঠিকভাবে কাজ করছে না। মাঝেমধ্যে ঝামেলা করছে। কেউ টাকা দাবি করছে। বিষয়টি পুলিশকেও জানানো হয়। অবস্থার পরিবর্তন না হলে কারখানা নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দেওয়া হবে।’