সরকারি সুবিধা থেকে বঞ্চিত, দুমুঠো খাবার জোগাড় করতে হিমসিম মা-মেয়ের

84

বালুরঘাট: ভোট আসে, ভোট যায়। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সাহায্য মিললেও, তা দিয়ে দিন বদলায় না অসুস্থ মা ও মেয়ের। বার্ধক্য ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা ইত্যাদি সরকারি কোনও প্রকল্পের সুযোগ মেলেনি। তাই অসুস্থ মেয়েকে বাড়িতে রেখেই, খাবারের সন্ধানে বের হতে হয় বৃদ্ধা অ্যানে গুড়িয়াকে। পঞ্চায়েত সমিতি বা জেলা প্রশাসনিক ভবনে গিয়ে চাল নেওয়ার কথা বললেও, যাতায়াতের খরচার জন্য তা সম্ভব হয় না। স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে ভুলের জন্য থমকে রয়েছে মেয়ের চিকিৎসাও।

বালুরঘাট ব্লকের চকভৃগু গ্রাম পঞ্চায়েতের দক্ষিণ কুয়ারণ এলাকার বাসিন্দা অ্যানে গুড়িয়া(৭০)৷ স্বামী মারা গিয়েছেন অনেক আগেই। তারপর থেকেই একমাত্র মেয়ে রেনুকা কাউয়াকে নিয়ে থাকেন তিনি। কাজ করতে অক্ষম হওয়ায় কোনরকমে শাক পাতা খেয়েই এতদিন চলত মা ও মেয়ের। সম্প্রতি দুজনের শরীরেই বাসা বেঁধেছে কঠিন অসুখ। এরইমধ্যে প্রতিবন্ধী মেয়েটিও অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। হাসপাতালে দুমাস চিকিৎসা করিয়ে বাড়িতে ফিরে এলেও এখনও যথেষ্ট চিকিৎসার প্রয়োজন রয়েছে। তবে, আর্থিক প্রতিকূলতার কারণে চিকিৎসা করানো যায়নি। অন্যদিকে সরকারের তরফে চাল ও ঘর মিললেও অন্যান্য খরচের যোগানে পড়েছে ভাঁটা। তাই ভোটের আগে নেতারা প্রচারে এলে তাঁদের কাছে আর কিছু নয় দুমুটো খাবারেরই দাবি জানাচ্ছে বৃদ্ধা।

- Advertisement -