বর্তমানে ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করছেন নেতারা: দেব

210

বালুরঘাট: ‘বর্তমানে রাজনীতিটাই বদলে গিয়েছে। দিদি (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) যদি এবারের নির্বাচনে দাঁড়াতে বলতেন, প্রার্থী হতে বলতেন, আমি দাঁড়াতাম না। এবারে কেউ উন্নয়ন নিয়ে কথা বলছেন না, সরকারে এলে কি কাজ করবেন, তা বলছেন না, শুধু ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করছেন নেতারা। আর এখানেই আপত্তি আছে আমার।’ সোমবার বালুরঘাটের তৃণমূল প্রার্থী শেখর দাস গুপ্তার সমর্থনে প্রচারে এসে কামারপাড়া সভাতে এমনই বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসলেন তৃণমূলের সাংসদ দীপক অধিকারী ওরফে দেব। তাহলে কি রাজনীতি থেকে সন্ন্যাস নিতে চলেছেন তৃণমূলের তারকা সাংসদ দেব? প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলে।

রাজ্যজুড়ে এবারের নির্বাচনে ধর্মীয় মেরুকরণ স্পষ্ট হয়ে উঠছে। এই বিষয়টি তুলে ধরে তৃণমূল সাংসদ দেব বলেন, ‘হিন্দু নেতারা বোঝাচ্ছেন হিন্দুরা বিপদে রয়েছে, মুসলমান নেতারা বোঝাচ্ছেন, মুসলমানরা বিপদে রয়েছেন। উন্নয়নের কথা কোনও পক্ষের নেতারা বলছেন না সরকারে এলে কি কি কাজ করবেন। তা নিয়েও কোনও আলোচনা চলছে না। এই ধর্মের রাজনীতিতে আমার আপত্তি আছে। ২০১৪ সালের পর থেকে রাজনীতিটাই বদলে গিয়েছে। কোনও ধর্মের মানুষ সুরক্ষিত নেই বলে দাবি করে ভোট নিয়ে আখেরে নেতারাই সুরক্ষিত থাকেন। করোনাকালেও পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশেও কোনও নেতা দাঁড়াননি। তবে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী রাস্তায় নেমেছিলেন, পাশে দাঁড়িয়েছিলেন মানুষের। দেবের আবেদন, একটু ভেবে ভোট দেবেন, যাতে যে দল মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে থাকবে, তারাই যেন সরকার গঠন করে সকলের পাশে থাকতে পারে।’ এদিন তাঁর সভায় ভিড় করা সকল মানুষকে মাস্ক পরতে উৎসাহিত করেন তারকা-সাংসদ দেব। তিনি বলেন, ‘নির্বাচন আসবে, যাবে। কিন্তু মানুষকে বেঁচে থাকতে হবে।’

- Advertisement -