শারীরিক হেনস্থার প্রতিবাদে ধর্না

304

সামসী: বুধবার সদ্ভাব ভবনে ছিল রতুয়া-২ পঞ্চায়েত সমিতির অর্থ উন্নয়ন ও পরিকল্পনা সমিতির সভা। সভা শুরু হয় দুপুর একটা নাগাদ। এদিন সভায় ওই পঞ্চায়েত সমিতির পাঁচজন কর্মাধ্যক্ষ ও তিনজন সদস্য অভিযোগ করে বলেন, ‘তাঁদের এলাকার উন্নয়নে কোনো কাজ হচ্ছে না এবং সেটা যেন সভার রেজ্যুলেশন বুকে লিপিবদ্ধ করা হয়।‘ আর একথা শোনা মাত্রেই রতুয়া-২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ও পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত দপ্তরের সচিব সোমেজ দত্ত দুজনের অঙ্গুলিহেলনে বাইরে থেকে গুন্ডা বাহিনী এসে সভা চলাকালীন পঞ্চায়েত সমিতির খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ আব্দুল বারিকে কিল, চড়, থাপ্পড় মারা হয় বলে অভিযোগ।

এদিকে ওই পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ সানুআরা খাতুনকে ধাক্কা মেরে চেয়ারের ওপর ফেলে দেওয়া হয়। প্রতিবাদ করার অপরাধে তাঁদের সদ্ভাব ভবন থেকে একরকম গলা ধাক্কা দিয়ে গায়ের জোরে সভা করেন। এর প্রতিবাদে দুপুর আড়াইটা থেকে বিডিওর দপ্তরের সামনে ধর্নায় বসেন পঞ্চায়েত সমিতির প্রতিবাদী পাঁচ কর্মাধ্যক্ষ ও তিনজন সদস্য।

- Advertisement -

বিরোধী নয়, নিজের দলেরই কর্মাধ্যক্ষ ও সদস্যদের সাথে এহেন আচরণ করায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে এলাকায়। ওই পঞ্চায়েত সমিতির খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ আব্দুল বারি ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, ‘দীর্ঘদিন তাঁর নিজ এলাকায় কোনো উন্নয়ন মূলক কাজ হয়নি। সভায় সেকথায় বলতে গিয়ে মার খেতে হল তা ভাবায় যায় না। একজন মহিলা কর্মাধ্যক্ষকেও মারধর করতে ছাড়েননি তাঁরা।‘

তিনি সাফ অভিযোগ করে বলেন, ‘তাঁদের ওপর আক্রমণ হয়েছে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুমিত্রা সরকার ও পূর্ত সচিব সোমেজ দত্তের অঙ্গুলিহেলনে। তাই সুবিচারের দাবিতে বিডিওর দ্বারস্থ হয়েছি আমরা। বিডিওর দপ্তরের সামনে দুপুর আড়াইটা থেকে ধর্নায় বসে আছি। যদিও জয়েন্ট বিডিও সৌরভ দেব তাঁদের বুঝিয়ে সুঝিয়ে ধর্না থেকে ওঠানোর চেষ্টা করছেন।তবে বরফ গলেনি।খবর লেখা পর্যন্ত ধর্না চলছে।‘

রতুয়া-১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুমিত্রা সরকার নিজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘নিয়ম মেনে সব এলাকারই উন্নয়নমূলক কাজ করা হচ্ছে।‘

রতুয়া-২ বিডিও সোমনাথ মান্নাকে এব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘সভা শুরু করেই লস্করপুরে দুয়ারে সরকারের কর্মসূচিতে যোগদান করি।সভা চলাকালীন গন্ডগোলের খবর পাই। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘটনায় কোনো সরকারি আধিকারিক জড়িত থাকলে তাঁর বিরুদ্ধেও কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান বিডিও।‘