নদীতে ভাসিয়ে কাঠ পাচার রুখল বন দপ্তর

252

ধূপগুড়ি: বৃষ্টিকে হাতিয়ার করে রাতের অন্ধকারে নদীতে কাঠ ভাসিয়ে পাচার করছিল দুষ্কৃতীরা। ঘটনা বুঝতে পেরেই পাচারচক্রের পিছু ধাওয়া করেন বনকর্মীরা। শেষ পর্যন্ত শূন্যে গুলি চালিয়ে পাচার রুখে দিলেন মোরাঘাট রেঞ্জের সোনাখালি বিটের বনকর্মীরা। শুক্রবার গভীর রাতে সোনাখালি এলাকায় নদীতে শাল কাঠের লগ দড়িয়ে বেঁধে ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল একদল পাচারকারী। তখনই বিষয়টি নজরে আসে টহলরত বনকর্মীদের। পাচারকারীদের থামতে বললেও তারা ভ্রূক্ষেপ করেনি। পাচার রুখতে বাধ্য হয়ে শূন্যে গুলি চালান বনকর্মীরা। বেগতিক বুঝতে পেরে কাঠের লগ ছেড়েই পালিয়ে যায় পাচারকারীরা। খবর পেয়ে রাতে ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় ধূপগুড়ি থানার পুলিশও। কিন্তু পাচারকারীদের ধরা যায়নি। সেই সময় তারা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বন দপ্তর।

শনিবার সকাল থেকে অবশ্য নদী থেকে শাল কাঠের লগগুলি উদ্ধার শুরু করেন বনকর্মীরা। মোরাঘাট রেঞ্জের দায়িত্বে থাকা অ্যাসিস্ট্যান্ট কনসারভেটর অফ ফরেস্ট বিপাশা পারুল জানান, হাতি তাড়াতে সাধারণত গুলি চালাতে হয়। কিন্তু ওই রাতে শাল কাঠ পাচারের খবর আসে। তাদের রুখতে এবং বনকর্মীদের নিরাপত্তার জন্যে শূন্যে গুলি চালাতে হয়েছে। পাশাপাশি কাঠগুলি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে যুক্তরা পালিয়ে গিয়েছে। তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে।

- Advertisement -