সৌমেন্দুর অপসারণে ক্ষোভ, কাঁথি পুরসভার অফিসে বসবেন না দিব্যেন্দু

231

উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক: কাঁথি পুরসভার প্রশাসক পদ থেকে সৌমেন্দুকে সরানোয় ক্ষুব্ধ অধিকারী পরিবার। ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সৌমেন্দু অধিকারীর দাদা তথা তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী। তিনি জানিয়েছেন, প্রশাসক পদ থেকে সৌমেন্দুকে সরিয়ে দেওয়া দুর্ভাগ্যজনক। বুধবার থেকে দিব্যেন্দু আর কাঁথি পুরসভায় তাঁর অফিসে বসবেন না। তবে দলনেত্রীর প্রতি পূর্ণ আস্থা রয়েছে। এদিকে, তৃণমূলের দাবি, সৌমেন্দু পদে থেকে দলবিরোধী কাজ করছিলেন। সেকারণেই তাঁকে সরিয়ে সিদ্ধার্থ মাইতিকে প্রশাসক পদে বসিয়েছে রাজ্য সরকার।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবারই পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি পুরসভার প্রশাসক পদ থেকে সৌমেন্দু অধিকারীকে সরানো হয়েছে। প্রশাসক পদে কাঁথি টাউন সভাপতি সিদ্ধার্থ মাইতিকে বসানো হয়েছে। প্রশাসকমণ্ডলীতে রয়েছেন বিদায়ী কাউন্সিলর সেক সাবুল, সুবল মান্না ও পূর্ব মেদিনীপুর জেলার জেলা পরিষদ মেন্টর হাবিবুর রহমান। সৌমেন্দু অধিকারী কাঁথি পুরসভার দু-বারের চেয়ারম্যান। চেয়ারম্যানের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর প্রশাসক পদে বসেছিলেন তিনি।

- Advertisement -

মঙ্গলবার রাজ্য পুর ও নগর উন্নয়ন দপ্তরের তরফে প্রশাসক পদ থেকে সৌমেন্দুর অপসারণ সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। শুভেন্দু অধিকারীর ভাই হলেন সৌমেন্দু। কয়েকদিন আগেই শুভেন্দু তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। তার ফলেই সৌমেন্দুকে সরিয়ে দেওয়া হল কিনা, তা নিয়ে কাঁথি শহরে রাজনৈতিক জল্পনা তুঙ্গে।

যদিও সৌমেন্দু অধিকারী মঙ্গলবার বলেছিলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা নেই। সরকারিভাবে আমার কাছে কোনও কপি আসেনি। এই বিষয়ে মন্তব্য করব না।’