মারাদোনার মৃত্যু নিয়ে কী বললেন আইনজীবী?

বুয়েনেস আয়ার্স : চিকিৎসার ভুলেই মৃত্যু হয়েছে দিয়েগো আর্মান্দো মারাদোনার। কিংবদন্তি ফুটবলারের মৃত্যু প্রসঙ্গে বিস্ফোরক অভিযোগ তাঁর প্রাক্তন আইনজীবী মাতিয়াস মোরলার। এমনকি মারাদোনার পরিবারের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুলেছেন তিনি।

কিংবদন্তির মৃত্যুর পর বছর ঘুরতে চললেও বিতর্ক থামেনি। শেষদিকে মারাদোনা পর্যপ্ত চিত্ৎসা পেয়েছেন কি না তা নিয়ে তদন্ত করছে স্থানীয় পুলিশ বিভাগ। সোমবার তদন্তকারীদের কাছে জবানবন্দী দিতে যান মাতিয়াস। সেখান থেকে বের হওয়ার সময় সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, একের পর এক ভুল মারাদোনাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে। ওর দেহ স্ফিত হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু ওরা (চিকিৎসকরা) কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। শেষপর্যন্ত ওর হৃদযন্ত্র কাজ করা বন্ধ করে দেয়। গত বছর ২৫ নভেম্বর হার্ট অ্যাটাকে মারাদোনার মৃত্যু হয়। এর কিছুদিন আগেই তাঁর মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার হয়। কিন্তু তিনি সেই অস্ত্রোপচারের ধাক্কা সামলাতে পারেননি বলে অভিযোগ।

- Advertisement -

মারাদোনার চিকিৎসায় গাফিলতি হয়েছে বলে বিশ্বাস তাঁর অনুরাগীদের একটা বড় অংশের। সেই দলে নাম লেখানো মাতিয়াসের বক্তব্য, মারাদোনার চিকিৎসা ঠিকমতো হয়নি। এটাই ওর মৃত্যুর কারণ। মৃত্যুর কিছুদিন আগে আমার সঙ্গে শেষবার ওর সাক্ষাৎ হয়। সেসময় ও অদ্ভূত যান্ত্রিক ও কর্কশ স্বরে কথা বলছিল। আমি সবাইকে ওর পরিস্থিতি নিয়ে সতর্ক করি। পরে বুঝেছি, শরীরে জল বেশি হয়ে যাওয়ায় ও এমন করছিল। অস্ত্রোপচারের পর মারাদোনাকে হাসপাতালের পরিবর্তে বাড়িতে রাখা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। মাতিয়াসের কথায়, চিকিৎসকরা বলেছিলেন ক্লিনিকে থাকা উচিত। এরপরও কেন ওই বাড়িতে মারাদোনাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল!

মারাদোনার মেয়েদের উদ্দ্যেশ্যেও তোপ দেগেছেন মাতিয়াস। তিনি বলেন, আমার বিশ্বাস মারাদোনার মেয়েরা ওকে পরিত্যাগ করেছিল। তবে আইনি দায়িত্ব আর নৈতিক দায়ত্ব পৃথক বিষয়। গত অগাস্টে মারাদোনার দুই মেয়ে ডালমা ও জিয়ানিন্নার বিরুদ্ধে অনলাইনে মাতিয়াসকে হেনস্তা করার অভিযোগ উঠেছিল।