সোমবারও গ্রিন জোনে চলল না বেসরকারি বাস, ভর্তুকির আর্জি বাসমালিকদের

448

স্বরূপ বিশ্বাস, কলকাতা: সোমবার আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার ছাড়া গ্রিন জোনের বাকি জেলাগুলিতে বেসরকারি বাস পথে নামেনি। কোচবিহারে এদিন মাত্র চারটি বাস চললেও যাত্রীর অভাবে পরে সেগুলোকেও তুলে নেওয়া হয়। আলিপুরদুয়ারের বিভিন্ন রুটে বাস চলেছে। তবে আর্থিক ক্ষতি সামাল দিতে বাস মালিকরা সাময়িকভাবে ভর্তুকি হিসেবে সরকারের কাছে ভর্তুকি চেয়েছে। জেলা প্রশাসনের নিকট এই আর্থিক আর্জির কথা জানানো হয়েছে। বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর এখনও সরকারের সঙ্গে একমত হতে পারেনি। বাস মালিকরা এখনও লিখিতভাবে দ্বিগুণ ভাড়া নেওয়ার সরকারি নির্দেশ হাতে পাননি বলে অভিযোগ বাস মালিকদের।

স্বাভাবিকভাবেই এই সব জেলায় বেশি বাস পথে নামেনি। জেলা প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞায় ঝাড়গ্রামে বেসরকারি বাস চলেনি। কলকাতায় পরিবহণ দপ্তরের কাছে বেসরকারি বাস চলাচলের এই ছবি আসার পরও আলাদাভাবে নতুন কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি সরকারি পর্যায়ে। সোমবার পরিবহণ দপ্তরে এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে জানানো হয়, যেসব জেলায় বাস চলেনি সেখানেও চলবে। নতুন কিছু বলার নেই। আলোচনা চলছে। দাবি-দাওয়া থাকবেই। জেলা প্রশাসন এগুলো দেখবে। আপাতত তাদের আগেই নির্দেশ দেওয়া রয়েছে। জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে আলোচনা করে সব ঠিক করা হবে।

- Advertisement -

এদিকে বাস মালিকরা এখনও সব জেলায় জেলা প্রশাসনের কাছে সব রকম সহযোগিতা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ। যাত্রীদের কাছে দ্বিগুণ ভাড়া নেওয়ার কোন সরকারি নির্দেশ কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার ছাড়া গ্রিন জোনের অন্য কোনও জেলাতেই তারা পাননি। অল বেঙ্গল বাস-মিনিবাস সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক রাহুল চট্টোপাধ্যায় জানান, তারা সরকারের সঙ্গে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত। তাদের আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা যাবে না। তবে জেলা প্রশাসনের তরফে সহযোগিতা প্রয়োজন। তা পাওয়া যাচ্ছে না। তাই সব জেলায় বাস চালানো সম্ভব হচ্ছে না।