ভোটের বাজারে দামে এগিয়ে পদ্ম সন্দেশ, বিক্রিতে জোড়াফুল

130

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: বেজে গিয়েছে ভোট উৎসবের ঢাক। তাই বর্ধমানের মিষ্টান্ন বাজারেও লেগে গিয়েছে ভোটের ছোঁয়া। বর্ধমানের একটি মিষ্টির দোকানে প্রবেশ করলেই চোখে পড়বে ভোট রাজনীতির চিত্র। বর্ধমানের তিন প্রসিদ্ধ মিষ্টান্ন সীতাভোগ, মিহিদানা ও ল্যাংচার পাশাপাশি নজর কাড়ছে ‘খেলা হবে’ সন্দেশ। এছাড়াও ভোট উৎসবকে সামনে রেখে তৈরি করা হয়েছে তৃণমূল ও বিজেপির প্রতীক দেওয়া সন্দেশ। এমন মিষ্টান্ন হাতের কাছে পেয়ে খুশি ভোটাররাও।

ভোটের বাজারে দামে এগিয়ে পদ্ম সন্দেশ, বিক্রিতে জোড়াফুল| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

- Advertisement -

নির্বাচন কমিশন এই রাজ্যের ২০২১-এর বিধানসভা ভোটের দিন ইতিমধ্যেই ঘোষণা করে দিয়েছেন। তারপর থেকে জমে উঠেছে বাংলার ভোট উৎসবের বাজার। ভোটের লড়াইয়ের ময়দানে ’টুম্পা সোনা’ গান যেমন বাজছে তেমনই বাজার মাতাচ্ছে ’খেলা হবে’ স্লোগান। রবিবার থেকে ভোটের ময়দানে জায়গা করে নিয়েছে ‘মারব এখানে লাশ পড়বে শ্মশানে’ এবং ‘এক ছোবলেই ছবি’। তবে এই সবকিছুকেই পিছনে ফেলে দিয়েছে মিষ্টান্নে রাজনীতির ঠোকাঠুকি।

এবারের বিধানসভা ভোটে ‘খেলা হবে’ স্লোগানটা যেন একটু বেশি হিট করেছে। ব্রিগেডের সভায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মুখেও শোনা গিয়েছে ‘খেলা হবে’ স্লোগান। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর দলের নেতা ও কর্মীদের মুখে তো অহরহ শোনা যাচ্ছে ’খেলা হবে’ স্লোগান। বর্ধমানের মিষ্টান্ন ব্যবসায়ী সৌমেন দাস
জানালেন, এসব দেখেই ‘খেলা হবে’ সন্দেশ তৈরির পরিকল্পনা তাঁর মাথায় আসে। আর এবারের বিধানসভা ভোটে মূল লড়াইটা যেহেতু তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে তাই এই দুই দলের প্রতীক বিশিষ্ট সন্দেশ তিনি তৈরি করেছেন।

সৌমেন বাবু অবশ্য দামে বিজেপির পদ্মফুল সন্দেশকেই এগিয়ে রেখেছেন। তাঁর দোকানে একটি পদ্মফুল সন্দেশ বিক্রি হচ্ছে ১৫ টাকা দরে। আর একটি জোড়াফুল সন্দেশের দাম ১০ টাকা। নলেন গুড় আর রাবড়ি দিয়ে তৈরি ‘খেলা হবে’ সন্দেশ, দাম রাখা হয়েছে প্রতি পিস ১০ টাকা। ভোট যত এগিয়ে আসছে মিষ্টির চাহিদাও ততোই বাড়ছে।