হাতের মুঠোয় ডিজিটাল লাইব্রেরি, উদ্যোগ উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের

89

শুভঙ্কর চক্রবর্তী, শিলিগুড়ি : সংক্রমণের ভয়ে বন্ধ হয়েছে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের দরজা। তবে এক দরজা বন্ধ হলেও কোভিড পরিস্থিতি উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার ক্ষেত্রে নতুন দরজা খুলে দিয়েছে। ভাইরাসের দৌলতেই বিনামূল্যে ঘরে বসে বিশ্বের বিভিন্ন ডিজিটাল লাইব্রেরি ব্যবহার করতে পারছেন ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক এবং গবেষকরা। বিভিন্ন অনলাইন প্রকাশনা সংস্থার জার্নালও বিনা পয়সাতেই পড়তে বা ডাউনলোড করতে পারছেন।

কী এই রিমোট অ্যাক্সেস? বিভিন্ন অনলাইন পোর্টাল বা ডিজিটাল লাইব্রেরি আগে শুধুমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষই ব্যবহার করতে পারত। সরাসরি কোনও ছাত্র বা গবেষক সেখানে ঢুকতে পারতেন না। এখন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাসওয়ার্ড নিয়ে তাঁরাও সরাসরি সেইসব পোর্টাল বা লাইব্রেরিতে ঢুকতে পারবেন। প্রয়োজন থাকলেও এতদিন রিমোট অ্যাক্সেস ব্যবস্থা চালুর অনুমোদন পায়নি বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। এবার সেই সুযোগ মেলায় উচ্চশিক্ষার প্রসারে অত্যন্ত কার্যকর হবে বলেই মনে করছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শীর্ষ আধিকারিকরা।

- Advertisement -

উচ্চশিক্ষার প্রসারে অনলাইন ক্লাস বা শিক্ষা সংক্রান্ত তথ্য সরবরাহের জন্য একাধিক পোর্টাল খুলেছে বিভিন্ন নামী সংস্থা। সেইসব পোর্টালে বিনা পয়সায় রেজিস্ট্রেশন করতে পারছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। আর বিশ্ববিদ্যালয়ে মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীরা সেই পোর্টালে ঢুকে নিজেদের চাহিদামতো ক্লাস করতে বা তথ্য সংগ্রহ করতে পারছেন। নতুন ব্যবস্থাপনায় ডিজিটাল লাইব্রেরি ব্যবহারের সুযোগ হাতছাড়া করেনি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই তাঁরা ডিজিটাল লাইব্রেরি বা অনলাইন জার্নাল ব্যবহারের জন্য ছাত্র, শিক্ষক ও গবেষকদের প্রয়োজনীয় পাসওয়ার্ড দিয়েছে।

উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারিক মৃগাঙ্ক মণ্ডল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ওয়েবসাইটে রিমোট অ্যাক্সেস নামে একটি আইকন তৈরি হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে পাওয়া পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট আইকনে গিয়ে ছাত্রছাত্রীরা বিশ্বের বিভিন্ন জার্নাল পড়তে ও ডাউনলোড করতে পারবেন। বিভিন্ন অনলাইন প্রকাশনা সংস্থার ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ডও ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক ও গবেষকদের দিয়ে দেওয়া হয়েছে। রিমোট অ্যাক্সেস ব্যবস্থার মাধ্যমে সেইসব সংস্থার জার্নালও সুবিধামতো ব্যবহার করতে পারবেন পড়ুয়া ও গবেষকরা। করোনার জন্য যে সুবিধা আমরা পেয়েছি তার সম্পূর্ণ সদ্ব্যবহার করা হচ্ছে। ঘরে বসে থেকে বিনা পয়সায় বিশ্বের বিভিন্ন ডিজিটাল লাইব্রেরি, নামকরা জার্নাল ব্যবহারের সুযোগ এভাবে এর আগে পাওয়া যায়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, তাদের তরফে কোভিড-১৯ নামে একটি অনলাইন লাইব্রেরি নেটওয়ার্ক তৈরি করা হয়েছে। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় সেই নেটওয়ার্কে ঢুকে বহু জার্নাল ব্যবহার করতে পারবে। লাইব্রেরি নেটওয়ার্কে কয়েক মাসের জন্য বেশ কিছু জার্নালের সংখ্যাও বাড়িয়েছে ইউজিসি। এই নেটওয়ার্কের ক্ষেত্রেও ছাত্রছাত্রীদের রিমোট অ্যাক্সেস সুবিধা দেওয়া হয়েছে।

দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিজিটাল লাইব্রেরি ন্যাশনাল ডিজিটাল লাইব্রেরি পোর্টালের অন্তর্ভুক্ত। ঘরে বসে সেই পোর্টাল থেকেও সমস্ত সুবিধা পাচ্ছেন ছাত্র-শিক্ষক ও গবেষকরা। গবেষক অন্বেষা ভৌমিক বলেন, রিমোট অ্যাক্সেস ব্যবস্থা চালু না হলে গবেষণার কাজ অনেকটাই পিছিয়ে যেত। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং ইউজিসির পদক্ষেপকে ধন্যবাদ।