মুখ্যমন্ত্রী নিজেই লকডাউন মানেন না: দিলীপ

314

অনলাইন ডেস্ক: কয়েক দফা লকডাউনের পরেও রাজ্যে করোনা সংক্রমণের গতি কমেনি। উলটে আনলক পর্ব শুরু হতেই বাংলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বেড়েছে। সংক্রমণের গতিতে রাশ টানতে আজ থেকে রাজ্যের কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে ফের লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এই পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করোনা ইশ্যুতে ফের বিঁধলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী রাজনৈতিক কারণেই লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে দাবি মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদের। লকডাউনের শুরু থেকেই পথে নেমে লকডাইন পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। বাজারে চক হাতে সামাজিক দূরত্বের পাঠ দেওয়ার পাশাপাশি একাধিক হাসপাতালে পরিদর্শনও করেছেন। প্রথম থেকেই বিজেপি সহ একাধিক দল অভিযোগ তুলেছিল মুখ্যমন্ত্রী নিজেই লকডাউন অমান্য করছেন। যত দিন গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণের ঝাঁজ বাড়িয়েছে বিরোধীরা।

- Advertisement -

বৃহস্পতিবার সকালে দিলীপ ঘোষ জানান, মুখ্যমন্ত্রী নিজেই প্রথম থেকে লকডাউন মানেননি। তাঁর দেখাদেখি দলের অন্যান্যরাও লকডাউনের বিধি ভঙ্গ করেছেন। বাংলায় সেভাবে লকডাউন হয়নি বলে দাবি করেছেন তিনি। তবে দিলীপ এও বলেন, সাধারণ মানুষের সুরক্ষায় লকডাউন প্রয়োজন। তাঁর দাবি, রাজনৈতিক কারণেই আবারও বাছাই করা কয়েকটি জায়গায় লকডাউন কার্যকর করতে চলেছে রাজ্য়। তবে দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে শাসকদলের কেউ কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি।

এদিকে রাজ্যে ঝড়ের গতিতে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে রাজ্যে প্রতিদিনই নতুন নতুন রেকর্ড তৈরি হচ্ছে। আবার পরদিনই সেই রেকর্ড ভেঙে যাচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে রেকর্ড সংখ্যক মানুষের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন ৯৮৬ জন।

বুধবার পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে প্রকাশিত কোভিড ১৯ হেল্থ বুলেটিনে জানানো হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৯৮৬ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ২৪ হাজার ৮২৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনা সংক্রামিত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮২৭ জনের। ২৪ ঘণ্টায় ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তবে স্বস্তির কথা, আক্রান্তদের বেশিরভাগই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এপর্যন্ত রাজ্যে ১৬ হাজার ২৯১ জন করোনা আক্রান্ত সুস্থ হয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫০১ জন। অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা ৭ হাজার ৭০৫টি। এই মুহূর্তে রাজ্যে সুস্থতার হার ৬৫.৬২ শতাংশ।

এদিকে দেশে ক্রমাগত বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। ২৪ ঘন্টায় দেশে ফের করোনা সংক্রমণের রেকর্ড বৃদ্ধি। গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৪,৮৭৯। ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪৮৭ জনের।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ৭,৬৭,২৯৬। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪,৭৬,৩৭৭ জন। একজন পরিযায়ী শ্রমিক। মৃত্যু হয়েছে ২১,১২৯ জনের। অর্থাৎ, করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ২,৬৯,৭৮৯।