উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ করতে গিয়ে বিপত্তি

510

বালুরঘাট: উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ করতে গিয়ে বিপত্তি ঘটল বালুরঘাটে। বালুরঘাট পুরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসন্তি বাগান এলাকার ঘটনা। ওই এলাকায় বিদ্যুৎ বিভ্রাটের জেরে প্রায় ৩০ টি বাড়ির বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। রবিবার বিকেলের পরে ওই এলাকায় ১১ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ সরবরাহের কাজ করতে গিয়ে এই বিপত্তি ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে।

পুরনো ট্রান্সফর্মার পরিবর্তন করে নতুন করে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে গিয়েই এলাকার প্রায় ৩০ টি বাড়ির একাধিক বৈদ্যুতিক যন্ত্র বিকল হয়ে যায়। তার মধ্যে চালু থাকা টিভি, এসি ,ফ্রিজ ও জলের মেশিন থেকে শুরু করে লাইট পর্যন্ত কেটে যায় বলে অভিযোগ।

- Advertisement -

এলাকাবাসীর দাবি, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। কারণ, স্থানীয় মানুষদেরকে না জানিয়ে বিদ্যুতের কাজ করছিল ঠিকাদার। নতুন করে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতেই ভোল্টেজ বেড়ে যাওয়ায় এই বিপত্তি। এদিন ক্ষতিপূরণের দাবিতে এলাকার মানুষ বিক্ষোভ দেখায় দীর্ঘক্ষন। পরে এলাকায় পুলিশ পৌঁছলে অবস্থা স্বাভাবিক হয়।

বাসন্তী বাগান এলাকার বাসিন্দা মনোজ দাস জানান, এলাকায় ১১ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে। কিন্তু এলাকাবাসীদের কোনরকম আগাম সতর্ক করা হয়নি। বিদ্যুৎ দপ্তরের মাধ্যমে ঠিকাদার সংস্থা এই বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ করছিল। এলাকাবাসীকে সতর্ক করা হলে বিদ্যুৎ সংযোগের সময়ে বাড়ির বৈদ্যুতিক সরঞ্জামগুলি নিষ্ক্রিয় করে রাখা যেত। কিন্তু হঠাৎ এলাকায় উচ্চমাত্রায় বিদ্যুৎ সরবরাহের জেরে এলাকার প্রায় প্রতিটি বাড়ির ফ্রিজ, টিভি, জলের মোটরসহ একাধিক জিনিস অকেজো হয়ে যায়। এলাকাবাসীদের তরফে বিদ্যুৎ দপ্তরে ক্ষতিপূরণের দাবি জানানো হয়েছে। তাঁরা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাবাসীদের বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম মেরামত করে দেবে বলেছে জানিয়েছে।

বিদ্যুৎ সংযোগের দায়িত্ব পাওয়া ঠিকাদার সংস্থার তরফে প্রণব ভট্টাচার্য বলেন, বিদ্যুৎ দপ্তরের তরফে আমাকে এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ উপভোক্তাদের নামের তালিকা তৈরি করতে বলা হয়েছে। সেই নামের তালিকা অনুযায়ী সমস্ত ক্ষতিগ্রস্থ গ্রাহকদের বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম মেরামত করিয়ে দেওয়া হবে। কোনও গ্রাহকের কাছে কোনও রকম সরঞ্জাম মেরামতির মজুরি নেওয়া হবে না। সামান্য ভুলের জন্য বৈদ্যুতিক সরঞ্জামগুলো বিকল হয়ে পড়েছে। সেগুলো খুব তাড়াতাড়ি মেরামত করে দেওয়া হবে।